Press "Enter" to skip to content

পালাতে গিয়ে অসম পুলিশের গুলি খেল দুই নাবালিকার ধর্ষক ও খুনি ফোরিজুল রহমান

অসমের কোকড়াঝাড়ে ধর্ষণে অভিযুক্ত পুলিশের হাত থেকে পালানোর চেষ্টা করেছিল, এরপর পুলিশের জওয়ানরা তাঁকে গুলি করে। যদিও, গুলি অভিযুক্তের পায়ে লেগেছিল আর সেই কারণে সে সেখান থেকে পালাতে ব্যর্থ হয়। অভিযুক্ত ফোরিজুল রহমান দুই নাবালিকার ধর্ষণের সঙ্গে যুক্ত।

উল্লেখ্য, কোকড়াঝাড় জেলায় দুই নাবালিকা বোনের ধর্ষণ আর হত্যায় অভিযুক্তদের মধ্যে একজনকে পুলিশ তদন্তের জন্য ঘটনাস্থলে নিয়ে গিয়েছিল। সেই সময় অভিযুক্ত ফোরিজুল রহমান পুলিশের উপর হামলা করে সেখান থেকে পালানোর চেষ্টা করে।

যদিও, পুলিশ অভিযুক্তর মনস্কামনা পূর্ণ হতে দেয়নি। সে যখনই পুলিশের উপর হামলা করে সেখান থেকে পালানোর চেষ্টা করে, পুলিশ তখন তাঁর পা লক্ষ্য করে গুলি চালায় আর অভিযুক্ত সেখানেই মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। অভিযুক্তর হামলায় এক পুলিশকর্মীও আহত হয়েছে। পুলিশ দুই নাবালিকার মধ্যে একজনের ফোন জঙ্গলে খুঁজতে যাওয়ার সময় এই ঘটনা ঘটে।

সেই সময় অভিযুক্ত আচমকাই পুলিশের উপর হামলা করে দেয় আর সেখান থেকে পালানোর চেষ্টা করে। অভিযুক্ত পালানোর চেষ্টা করলে পুলিশ গুলি চালিয়ে দেয়।

এই ঘটনায় কোকড়াঝাড়ের এসপি বলেন, ‘ধর্ষণে মুখ্য অভিযুক্ত পুলিশের হেফাজতে ছিল। তাঁকে ঘটনাস্থলে তদন্তে নিয়ে যাওয়া হয়ে সে পুলিশের উপর হামলা করে পালানোর চেষ্টা করে। কিন্তু পুলিশও তৎপর হয়ে তাঁর উপর গুলি চালায় আর সে পালাতে ব্যর্থ হয়।”