Press "Enter" to skip to content

পুতিনের সঙ্গে সাক্ষাৎ প্রধানমন্ত্রী মোদীর, ভারত-রাশিয়ার বন্ধুত্ব আরও মজবুত করার বার্তা দুজনার

[ad_1]

নয়া দিল্লিঃ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) সোমবার নয়া দিল্লিতে রাশিয়ার (Russia) রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের (Vladimir Putin) সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এই সাক্ষাতের পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, ‘করোনার কারণে সৃষ্টি হওয়া সমস্যার পরেও ভারত-রাশিয়া সম্পর্কের মধ্যে কোনও দূরত্ব আসেনি। আমাদের বিশেষ এবং বিশেষ অধিকার গ্রহণের কৌশল নিয়মিতভাবে শক্তিশালী হচ্ছে৷”

https://platform.twitter.com/widgets.js

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র আরও মোদী বলেন, ‘গত কয়েক দশকে, বিশ্ব অনেক মৌলিক পরিবর্তন প্রত্যক্ষ করেছে এবং বিভিন্ন ধরনের ভূ-রাজনৈতিক সমীকরণের উদ্ভব হয়েছে কিন্তু ভারত ও রাশিয়ার বন্ধুত্ব অটুট রয়েছে।”

রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন এই সাক্ষাৎ নিয়ে বলেন, ‘আমরা ভারতকে একটি মহান শক্তি, একটি বন্ধুত্বপূর্ণ জাতি এবং একটি সময়ের পরীক্ষিত বন্ধু হিসাবে উপলব্ধি করি। আমাদের দুই দেশের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্ক বাড়ছে এবং আমি ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে আছি।”

পুতিন আরও বলেন,  ‘বর্তমানে, পারস্পরিক বিনিয়োগ প্রায় ৩৮ বিলিয়ন এ দাঁড়িয়েছে এবং রাশিয়ার দিক থেকে কিছুটা বেশি বিনিয়োগ আসছে। সামরিক ও প্রযুক্তিগত ক্ষেত্রে আমরা অন্য কোনো দেশের থেকে বেশি সহযোগিতা করি। একসঙ্গে আমরা উচ্চ প্রযুক্তির বিকাশের পাশাপাশি ভারতে উৎপাদনও করি।”

এর আগে ভারতে রাশিয়ার দূতাবাসের এক মুখপাত্র আশা জাহির করে বলেছিলেন যে, দুই দেশের মন্ত্রীদের মধ্যে এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের পরিস্থিতি এবং আফগানিস্তান-সিরিয়ার বর্তমান পরিস্থিতি সহ গুরুত্বপূর্ণ আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক ইস্যুতে গভীরভাবে আলোচনা করবেন। বর্তমানে রাশিয়া ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলকে এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকা বলে আখ্যা দিয়ে থাকে।

মুখপাত্র বলেছিলেন, উভয় পক্ষ সাংহাই সহযোগিতা সংস্থা (SCO) এবং রাশিয়া-ভারত-চীন (RIC) ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে মত বিনিময় করবে বলে আশা করা হচ্ছে। উনি জানিয়েছেন, ভবিষ্যতে রাশিয়া এবং ভারত সময়ে সময়ে এই ফর্ম্যাটে পর্যায়ক্রমে আলোচনা করতে চায়। লক্ষণীয় বিষয় যে ভারত আপাতত আমেরিকা, জাপান এবং অস্ট্রেলিয়া সহ কয়েকটি দেশের সাথে ২+২ মন্ত্রী পর্যায়ের আলোচনা করছে, যেখানে উভয় দেশের দুই মন্ত্রী অংশ নেন।

[ad_2]