Press "Enter" to skip to content

পুরো দলটাই ওঁর হয়ে গিয়েছে! তৃণমূলে অভিষেকের নতুন দায়িত্ব নিয়ে বিস্ফোরক মদন মিত্র


কলকাতাঃ শনিবার তৃণমূলের (All India Trinamool Congress) সাংগঠনিক বৈঠক ছিল। এই বৈঠকে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) কিছু বড় সিদ্ধান্ত নেন আর দলের যুব নেতাদের বড়বড় দায়িত্ব দেন। যুব সভাপতির পদ থেকে সরে দাঁড়ান অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। ওনার জায়গায় দলের নতুন যুব সভাপতির দায়িত্ব পান নির্বাচনের আগে তৃণমূলে যোগ দেওয়া অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ। এছাড়াও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কেও গুরু দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে দলের। ওনাকে সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক পদে নিযুক্ত করেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

শনিবার সাংগঠনিক বৈঠকে কামারহাটির তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্র () তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে ধমক খেয়েছেন। সূত্রের খবর অনুযায়ী, সাংগঠনিক বৈঠকে লাইভ সংক্রান্ত বিষয়ে মদনকে জোর ধমক দেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তৃণমূলের সাংগঠনিক বৈঠকে নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কামারহাটির বিধায়ক মদন মিত্রকে সাফ জানিয়ে দেন যে, ‘এভাবে সামাজিক মাধ্যমে এসে যখন তখন সবকিছু বলা যায় না।” যদিও, বৈঠক শেষ হওয়ার পর মদন মিত্র দাবি করেন যে, ওনাকে নেত্রী আরও ভালো করে ফেসবুক লাইভ করতে বলেছেন। মদন মিত্র বলেন, ‘দলনেত্রী আমাকে বলেছেন, তোমাকে সবা ভালবাসে। আমাদের সুবিধার জন্য তুমি তোমার ফেসবুক লাইভগুলো আরও সুন্দর ভাবে করো।”

বৈঠক শেষে মদন মিত্র সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন, ‘সায়নী ঘোষ যুব প্রেসিডেন্ট হয়েছে, এরফলে যুবটা একটা আলাদা রিদম পাবে।” অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় প্রসঙ্গে মদন মিত্রকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, ‘ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ই তো সব। দলটাই অভিষেকের হয়ে গিয়েছে। আমরা তো বারবার বলি, নাতিজা না বাংলার ভাতিজা।”