Press "Enter" to skip to content

পেনশন, অবসর নিয়ে বড়সড় চিন্তা ভাবনার পথে মোদী সরকার! সুখবর পেতে চলেছেন সরকারি কর্মীরা

কর্মচারীদের জন্য বড় বার্তা বয়ে নিয়ে এসেছে সরকার, এর আগে ইপিএফও গ্রাহকদের প্রাপ্য সুদের টাকা সেপ্টেম্বর মাস থেকেই দেওয়ার কথা জানানো হয়েছিল। এখন অবসরের বয়সসীমা ও পেনশন নিয়েও বড়সড় সিদ্ধান্ত করতে চলেছে নয়াদিল্লি। প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক উপদেষ্টা কমিটির রিপোর্টে কর্মচারীদের অবসরের বয়সসীমা ও পেনশনের পরিমাণ বাড়ানোর জন্য একটি প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

সূত্রের খবর, আর্থিক উপদেষ্টা কমিটির প্রস্তাবে বলা হয়েছে, কর্মীদের ন্যূনতম পেনশন ২০০০ টাকা হওয়া উচিত। শুধু সেটাই নয়, এই রিপোর্টে ইউনিভার্সাল পেনশন সিস্টেম চালু করারও ্তা ভাবনা করেছে কমিটি। ে এই মুহূর্তে প্রায় ১০ শতাংশের কাছাকাছি মানুষ অর্থাৎ ১৪ কোটি প্রবীণ নাগরিক রয়েছেন। তাদের সুরক্ষার জন্য এই পলিসি চালু করার প্রস্তাব দিয়েছে আর্থিক উপদেষ্টা কমিটি।

আরও জানানো হয়েছে, ৫০ বছর বয়সী ব্যক্তিদেরও যাতে কৌশল বিকাশ করা সম্ভবপর হয় সেজন্য কেন্দ্র এবং গুলি নিয়ম চালু করুক। কারণ অবসরের বয়সসীমা বাড়ালে এবং পেনশনের পরিমাণ বাড়লে প্রবীণ নাগরিকদের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত থাকবে। তার পাশাপাশি অসংগঠিত ক্ষেত্র, অভিবাসী এবং উদ্বাস্তু নাগরিকরাও যাতে ‘কৌশল বিকাশ’ করতে সক্ষম হন সেজন্যেও নীতি নির্ধারণের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

কমিটির পক্ষে জানানো হয়েছে, আগামী দিনগুলোতে ভারতে প্রায় ১৯.৫% মানুষ প্রবীণ নাগরিক শ্রেণীর অন্তর্ভুক্ত হবেন। তাই সামাজিক নিরাপত্তা ব্যবস্থার উপর চাপ কমাতে অবসরের বয়সসীমা বৃদ্ধি জরুরি। শুধুমাত্র তাই-ই নয়, এর ফলে কার্যক্ষেত্রে দক্ষতাও বৃদ্ধি পাবে। তবে এ বিষয়ে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেনি নয়াদিল্লি।