Press "Enter" to skip to content

প্যারিসে বন্ধ করে দেওয়া হলো গ্রান্ড মসজিদ! ইসলামিক কট্টরপন্থীদের বিরুদ্ধে কঠোর ফ্রান্সের সরকার

সম্প্রতি ে যে ঘটনা ঘটেছে তা নিয়ে চর্চা এখনও তুঙ্গে। ইতিহাসের শিক্ষক স্যামুয়েলকে ইসলামিক কট্টরপন্থীরা হত্যা করেছিল। শিক্ষক এক ক্লাসে হজরত মহম্মদের কার্টুন দেখিয়েছিলেন। শিক্ষক হত্যার পর ের জনগণ ও সরকার আক্রোশ মুডে রয়েছে।

সরকার ৩০০ জন ইসলামিক উন্মাদীকে চিহ্নিত করেছে যাদেরকে ফ্রান্সের বাইরে বের করে দেওয়ার হবে। শুধু এই নয় এখন ফ্রান্সের প্রশাসন প্যারিসের গ্র্যান্ড মসজিদ সিল করে দিয়েছে বলে পাওয়া যাচ্ছে। ফ্রান্সের সরকার উক্ত স্থানকে উন্মাদীদের আড্ডাখানা বলে আখ্যা দিয়ে বন্ধ করার কড়া নির্দেশ জারি করেছিল।

গ্র্যান্ড মসজিদ প্যারিসের উত্তর-পূর্ব অঞ্চলের এক শহরতলিতে অবস্থিত। শিক্ষক স্যামুয়েল হত্যার আগে এই মসজিদ থেকে উনার বিরুদ্ধে ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছিল। সরকার মসজিদের বাইরে নোটিস ঝুলিয়ে দিয়েছে। একই সাথে ধর্মে শিক্ষার নামে কট্টরতা ছড়ানো লোকজনদের দেশের সুরক্ষার বিরুদ্ধে বলে ধরা হবে এবং সেই ভিত্তিতে তদন্ত হবে বলে প্রশাসন স্পষ্ট জানিয়েছে।

মসজিদের বাইরে লাগানো নোটিসে লেখা হয়েছে, মসজিদ ৬ মাস বন্ধ রাখার একটাই উদেশ্য তা হলো আতঙ্কবাদী ঘটনাকে সমূল বিনষ্ট করা। জানিয়ে দি, ফ্রান্সে মুসলিম সংখ্যালঘুদের সাথে দেশের সংখ্যাবহুল জনসাধারণের একটা ফাটল তৈরি হয়েছে। শিক্ষকের গলা কেটে হত্যার পর সেই ফাটল আরো বৃদ্ধি পেয়েছে।