Press "Enter" to skip to content

প্রচারে নেমেই ৬.৫ কোটি কর্ণাটকের হিন্দুদের মন জয় করলেন যোগী আদিত্যনাথ।

বিজেপির ব্রহ্মা উত্তপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী ী আদিত্যনাথ বর্তমানে কর্নাটকে প্রচারে নেমে পড়েছে। আপনাদের জানিয়ে রাখি কর্ণাটকের বিজেপি সমর্থকরা খুব উৎসাহিত রয়েছেন কারণ মোদীর রালির সংখ্যা ১৫ থেকে বাড়িয়ে ২১ করা হয়েছে এবং এর রালি সংখ্যা রাখা হয়েছে ২০ টি। আপনাদের জানিয়ে রাখি কর্ণাটকের হিন্দুরা যোগী আদিত্যনাথকে খুবই সন্মান করেন কারণ কর্ণাটকের নাথ সম্প্রদায়ের সবথেকে বড়ো মথ গোরক্ষপুরের সন্ত। আর এই কারণেই বিজেপি যোগী আদিত্যনাথকে কর্নাটকে প্রচারে নামিয়েছে। কিন্তু কর্ণাটকের ের দাবি ছিল যোগীর সাথে কর্ণাটকের কোনো সম্পর্ক নেই তাই উনার এখানে আসা উচিত নয়। তবে যোগী আদিত্যনাথ এই ব্যাপারে কংগ্রেসকে যা জবাব দিলেন তাতে কর্ণাটকের হিন্দুদের মন জয় করে নিলেন যোগী আদিত্যনাথ।

আসলে যোগী আদিত্যনাথ আজ কর্নাটকে প্রচারে গিয়ে উত্তরপ্রদেশের সাথে কর্ণাটকের যে সম্পর্ক রয়েছে তা সবার সামনে খুলে দেন। যোগী আদিত্যনাথ বলেন আমি যেখানে থেকে সেখানে প্রভু রাম জন্মগ্রহণ করেছিলেন অন্যদিকে কর্নাটকে জন্মগ্রহণ করেছিলেন ভগবান রামের প্রধান সহযোগী হনুমানজি।
হিন্দুদের ধর্মগ্রন্থ অনুসারে জন্মগ্রহণ করেছিলেন অঞ্জনিয়া পাহাড়ে যা বর্তমানে কর্ণাটকের হামপির কাছে অবস্থিত। যোগী আদিত্যনাথ এর এই বক্তব্য রাখার সাথে সাথে উপস্থিত সকলে হাততালি দিতে শুরু করেন।
যোগীজি ভগবান রাম ও হনুমান ছাড়াও আরো বেশ কিছু পুরানো ভারতীয় সঙ্গস্কৃতির কথা মনে পড়িয়ে দেন যার মাধমে উত্তর ভারত ও দক্ষিণভারত যে পরস্পরের সঙ্গে নিবিড়ভাবে যুক্ত তা বুঝিয়ে দেন।

যোগিজি এই উত্তরের মাধমে সেই সব কংগ্রেসিদের মুখে ঝামা ঘষে দেন যারা উত্তপ্রদেশ ও কর্ণাটকের মধ্যে সম্পর্ক খুঁজতে ব্যাস্ত ছিল।যোগী আদিত্যনাথ আরো বলেন, কর্ণাটক এখন ীদের রাজ্যে পরিণত হয়েছে। এখানে কংগ্রেস সরকার টিপু সুলতান জয়ন্তী পালনে ব্যাস্ত থাকলেও হনুমান জয়ন্তী পালন কখনো করেন না এই বলেও কংগ্রেসের চেহেরা সবার সামনে খুলে দেন যোগী আদিত্যনাথ।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.