Press "Enter" to skip to content

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীজির পরিবারের অবস্থা জানলে, মোদীজির প্রতি আপনার শ্রদ্ধা আরো বেড়ে যাবে।

প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র কে সকল ভারতবাসী খুব ভালো ভাবেই জানেন এবং খুব শ্রদ্ধাও করেন। মোদীজির কাছে কাছে যে সবার আগে দেশ সেটা আর আলাদা করে বলার কিছু নেই। আসুন আজ জেনে নিই তার পরিবার সম্মন্ধে কিছু কথা। নরেন্দ্র মোদী যিনি গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন টানা ১৪ বছর এবং বর্তমানে ভারতবর্ষের মত একটা এত বড় দেশের প্রধান মন্ত্রী তিনি চাইলেই তার পরিবারের সাথে সরকারি সুযোগ কাজে লাগিয়ে কোনো বড় বাংলোতে থাকতে পারতেন। সেটা ভারতবর্ষের সব নেতা মন্ত্রীরা করে থাকেন।কিন্তু না তিনি দেশের মানুষের কথা ভেবে সেটা করেন নি। আসুন আজ আপনাদের জানাবো নিজের পরিবারের একজন দেশের প্রধান মন্ত্রী হবার পরও মোদীজির পরিবারের সকলে এখনো কেমন করে জীবন কাটায়।

অমৃতভাই মোদী:
ইনি নরেন্দ্র মোদীর দাদা যিনি সারা জীবন একটা বেসরকারি কম্পানিতে কাজ করেছেন।। এখন অবসর করার পর মাত্র ১০০০০ টাকা পেনশন পান সেই দিয়েই নিজের সংসার চালান।। তিনি এখনও অব্দি তার সেই পুরনো গাড়িটি ব্যাবহার করেন।। আজ অব্দি এনার পরিবারের কেও ে চাপেন নি।

প্রহ্লাদভাই মোদ:
ইনি একটি ছোটো গোলদারি দোকান চালান।। এনার আর্থিক অবস্থা খুবই খারাপ।। কিছু দিন আগে এনার মেয়ে(নিকুঞ্জবেন) শুধু মাত্র টাকার অভাবের জন্য বিনা চিকিৎসায় মারা যান।

পঙ্কজভাই মোদী:
মোদীজির এই ভাই অন্যসকল ভাইদের থেকে একটু ভালো অবস্থায় থাকেন। এই ইনফরমেশন ডিপার্টমেন্ট এ ক্লার্ক পদে কাজ করেন। ইনার তিনরুম বিশিষ্ট একটা বাড়িও রয়েছে। এই ভাইয়ের সাথেই থাকেন।

আশোকভাই মোদী:
ইনি নরেন্দ্র মোদীর কাকার ছেলে ইনি ঠেলা গাড়ি করে ঘুরে ঘুরে ছোটোদের জন্য খেলনা বিক্রি করেন। এনার মাসিক আয় ৭০০০ টাকার মতো।

ভরতভাই মোদী: মোদীজির এই ছোট ভাই পেট্রোলপাম্পের এক কর্মী যার মাসিক আয় ৬০০০ টাকা করেন এবং উনার স্ত্রীর স্ন্যাকস বিক্রি করে মাসে ৪০০০ টাকা আয় করেন।

চন্দ্রকান্তভাই মোদী:
ইনি কিছু স্থানীয় কাজকর্ম করেন।। এনার মাসিক আয় এত টাই কম যে ইনি নিজের একটা ঘরের অভাবে আজ অব্দি ব্যাবসা শুরু করতে পারেন নি।

আরবিন্দভাই মোদী:
ইনি লোকের বাড়ি বাড়ি গিয়ে পুরনো অব্যাবহৃত টিন ভাঙা লোহা ভাঙা জোগার করে বিক্রি করেন।এই কঠোর জীবনের মধ্যে অতিবাহিত করেও কোনো কোনো মাসে ১০,০০০ টাকা রোজকার করতে সক্ষম হন।

একদিকে গান্ধি পরিবার যাদব অখিলেশ সরকারের টাকা নিয়ে নষ্ট করছে অন্য দিকে একজন দেশপ্রেমী নেতা দেশের কথা ভেবে তার পরিবারের জন্য কোনো রকম বিলাসিনী ব্যাবস্থা গ্রহণ করছেন না। এটাই পার্থক্য এখন মহান দেশ প্রেমিকের সাথে অন্য দের।
#আগ্নিপুত্র[sg_popup id=”1″ event=”onload”][/sg_popup]

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.