Press "Enter" to skip to content

প্রধানমন্ত্রী মোদীকে মেহবুবা মুফতি লিখলেন এমন চিঠি! দেখেই তেলে বেগুনে জ্বলে উঠল দেশবাসী

[ad_1]

ভারতে বসবাস করলেও পাকিস্তানের জয়গান করা যাবে কিন্তু তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থাও নেওয়া যাবে না। অদ্ভুত এই দাবি করেছেন কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি লিখে তিনি জানিয়েছেন, যেসব পড়ুয়া পাকিস্তানের জয়ে আনন্দিত হয়েছে এবং শাস্তি পেয়েছে তাদের ভবিষ্যতে যেন ক্ষতি না হয়। নেহাবা মুক্তি বলেছেন দেশদ্রোহী মামলায় গ্রেফতার হওয়া ছাত্রদের শীঘ্রই মুক্তি দিতে হবে।

গত রবিবার ভারত ও পাকিস্তানের বিশ্বকাপ ম্যাচ চলাকালীন পাকিস্তানের জয়ে উল্লাস প্রকাশ করার বহু ঘটনা প্রকাশিত হয়েছে সংবাদমাধ্যমে। পাক দলকে সমর্থন করার অভিযোগ তুলে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে কাশ্মীরি মেডিক্যাল কিছু পড়ুয়াদের বিরুদ্ধে। এক‌‌ইরকম ঘটনা ঘটেছে উত্তরপ্রদেশেও। আগ্রার মেডিক্যাল কলেজের তিন কাশ্মীরি পড়ুয়ার বিরুদ্ধে পাকিস্তানের জয়গান গাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। উত্তরপ্রদেশ পুলিশ সূত্রে খবর, পাকিস্তানের জয়ে উল্লাস প্রকাশের জন্য, লখনউ, আগ্রা, বরেলি, সীতাপুরের মোট সাতজন পড়ুয়ার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের মামলা দায়ের করা হয়েছে। এদের মধ্যে ৩ জন রয়েছে কাশ্মীরি এমবিবিএস পড়ুয়া।

কাশ্মীরি পড়ুয়াদের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের মামলা দায়েরের জন্য ক্ষুব্ধ মেহবুবা। তিনি প্রধানমন্ত্রীকে একটি চিঠি লিখেছেন। সেখানে উল্লেখ করেছেন, একটা ক্রিকেট ম্যাচকে ঘিরে কাশ্মীরে অশান্তি ছড়াচ্ছে, তা কোনোভাবেই মানা যায় না। চিঠিতে মুফতি লিখছেন,দিল্লিতে সর্বদল বৈঠক করার পর আমার আশা ছিল কাশ্মীরবাসীকে আপন করে নেবে ভারত সরকার। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সফরও আশা জুগিয়েছিল। কিন্তু একটা ক্রিকেট ম্যাচ ঘিরে কাশ্মীরে যেভাবে কড়াকড়ি করা হচ্ছে, তাতে কাশ্মীরবাসী ভীষণ হতাশ।

মেহেবুবার চিঠিতে বিশেষভাবে আগ্রার ৩ এমবিবিএস পড়ুয়ার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। মুফতি বলছেন, এতদিন এইসব অভিজ্ঞতা কাশ্মীরের মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল। কিন্তু এবার কাশ্মীরের বাইরেও এমবিবিএসের ডিগ্রি অর্জন করতে গিয়ে আক্রান্ত হতে হচ্ছে পড়ুয়াদের। এরাই আমাদের কাশ্মীরের সেরা প্রতিভা। এদের ভবিষ্যৎ যেন কোনোভাবেই নষ্ট না হয়। তবে শুধু চিঠি লিখেই শেষ করেননি মুফতি, তাঁর দল পিডিপি কাশ্মীরে পাকপন্থীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভও করেছে। ফলত প্রশ্ন উঠেছে, তবে কি মেহেবুবা মুফতি ঘুরিয়ে ভারত বিরোধিতায় ইন্ধন দিচ্ছেন?

[ad_2]