Press "Enter" to skip to content

প্রধানমন্ত্রী হওয়ার লক্ষ্য! প্রায় দু’বছর পর আজ দিল্লী যাচ্ছে মুখ্যমন্ত্রী, বিরোধীদের সঙ্গে হবে বৈঠক

কলকাতাঃ দিল্লী জয়ের লক্ষ্যে অবিচল মমতা ব্যানার্জী (Mamata banerjee)। তৃতীয়বার রাজ্যে ক্ষমতায় আসার পর এবার পাখির চোখ দিল্লী। আর সে লক্ষ্যকে মাথায় রেখেই একুশের নির্বাচনে জয়ের পর এই প্রথম রাজধানীর সফরে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। সোমবার বিকেল ৩টে াদ কলকাতা থেকে দিল্লীর উদ্দেশ্যে রওনা দেবেন তিনি। ৫ দিন তিনি রাজধানীতে কাটাবেন। প্রায় দুবছর পর দিল্লী সফরে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী।

পেট্রোল-ডিজেলের , পেগাসাস কাণ্ড এবং ভ্যাকসিনের দাবিতে বিগত এক সপ্তাহ ধরে লোকসভা আর রাজ্যসভা উত্তপ্ত হয়ে রয়েছে। একদিকে সংসদের বর্ষাকালীন অধিবেশনে তৃণমূলের সাংসদরা তুলকালাম বাঁধাচ্ছেন, আরেকদিকে তারই মধ্যে মুখ্যমন্ত্রীর দিল্লী সফর ভাবাচ্ছে বিজেপির সরকারকে।

জানা গিয়েছে যে, আগামী বুধবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়াও রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোভিন্দের সঙ্গেও সাক্ষাৎ করতে পারেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী আর রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাতের পর কংগ্রেসের সভাপতি সোনিয়া গান্ধী, এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার এবং বিজেপি বিরোধী শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি।

২০২৪-র লোকসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নেতৃত্বাধীন সমস্ত বিজেপি বিরোধী দলগুলিকে এক করার জন্য ঝাঁপিয়ে পড়েছে। একুশের শহীদ স্মরণ সভা থেকে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সবাইকে এক হওয়ার ডাক দিয়েছিলেন। আর সেই সুত্রেই ওনার দিল্লী সফর।

যদিও, এই প্রথম না যে লোকসভা নির্বাচনের আগে বিরোধী দলগুলি এক হওয়ার জন্য এমন উঠেপড়ে লেগেছে। এর আগে ২০১৯-র লোকসভা নির্বাচনের সময় বিরোধী দলগুলিকে একজোট করার চেষ্টা করা হয়েছিল। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ে বিভিন্ন বিরোধী দলের নেতাদের নিয়ে সমাবেশও করেছিলেন। তবে সেবার বিরোধীদের এক করার আশা পূরণ হয়নি। আর এবার আবারও সেই একই চেষ্টা করে বিজেপিকে প্রতিহত করার চেষ্টা চলছে।