Press "Enter" to skip to content

প্রিয়াঙ্কাকে জবাব দিলেন যোগী আদিত্যনাথ! বললেন গেরুয়া আমাদের জন্য ভালোবাসা, কংগ্রেসের জন্য ব্যাবসা।

গেরুয়া এমন একটা রং যা প্রাচীন সময় থেকে ভারতে সবথেকে বেশি প্রাধান্য পেয়ে আসছে। আসলে প্রত্যেক রং এর এক একটা বৈজ্ঞানিক গুরুত্ব রয়েছে। একটা সহজ উদাহরণ হিসেবে সাদা রং তাপ বর্জন করে, কালো রং তাপের শোষণ করে। শীতকালে যদি আপনি সাদা পোশাকের পরিবর্তে কালো পোশাক পরিধান করেন তাহলে পার্থক্য স্পষ্ট অনুভব করবেন। এখন সেই হিসেবে ভারতে বসবাসকারী জন্য সবথেকে শ্রেষ্ট রং হলো গেরুয়া। ভারতের সাধু, সন্ন্যাসী, ঋষি, মুনিরা গেরুয়া ব্যাবহারের প্রচলন আজও চালিয়ে যাচ্ছেন। আধ্যাত্মিক বিজ্ঞান অনুযায়ী, মানুষের শরীরের থাকা প্রথম চক্র মূলাধার ও দ্বিতীয় চক্র স্বাধিষ্ঠানের উপর গেরুয়া রঙের তীব্র প্রভাব থাকে। তবে শুধু ধর্মে নয়, বৌদ্ধ ধর্মেও গেরুয়া রঙের গুরুত্ব রয়েছে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

তবে যাইহোক বর্তমান সময়ে গেরুয়া রং নিয়ে রাজনৈতিক চর্চা বেশ জোরসোর দিয়ে হয়। সম্প্রতি কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা ভাদ্রা গেরুয়া রঙের উপর আক্রমন করতে মাঠে নেমে পড়েছেন। অন্যদিকে যোগী আদিত্যনাথের টিম প্রিয়াঙ্কাকে পাল্টা আক্রমন করতে ও গেরুয়ার প্রশংসা করতে পিছুপা হচ্ছে না। সম্পতি এক সংবাদ সম্মেলনে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী (Priyanka Gandhi) যোগী আদিত্যনাথ ও গেরুয়া রঙের উপর আক্রমন করেছিলেন।

প্রিয়াঙ্কাকে জবাব দিতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের (Yogi Adityanath) অফিস থেকে একটা টুইট করা হয়েছে। টুইটে যা লেখা হয়েছে তা সকলের নজর কেড়েছে। যোগী আদিত্যনাথের অফিস থেকে করা টুইটে লেখা হয়েছে, ক্রান্তির প্রতীক হলো গেরুয়া,শান্তির প্রতীক হলো গেরুয়া, মর্যাদা পুরুষোত্তমের তাপস রূপ হলো গেরুয়া। যোগী আদিত্যনাথের তরফ থেকে বলা হয়েছে যোগী ও রাজযোগীর মধ্যে আন্তঃসম্পর্ক হলো গেরুয়া।

https://platform.twitter.com/widgets.js

টুইটে বলা হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের জন্য গেরুয়া হলো ভালোার প্রতীক অন্যদিকে কংগ্রেসের জন্য গেরুয়া হলো ব্যাবসা। কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ভাদ্রা উত্তরপ্রদেশে নিয়ে বলতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ও গেরুয়া নিয়ে প্রশ্নঃ তুলেছিলেন। যার জবাবে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের অফিস থেকে টুইট করা হয়েছে যেখানে গেরুয়া ও ভারতের সম্পর্ক তুলে ধরা হয়েছে।