Press "Enter" to skip to content

পয়গম্বরের হাদিসের দোহাই দিয়ে মসজিদে মাইক বাজানোয় নিষেধাজ্ঞা জারি করল সৌদি সরকার


ওয়েবডেস্কঃ  আরবের (Saudi Arabia) ইসলামিক বিষয়ক মন্ত্রালয় একটি নোটিশ জারি করে নামাজের সময় মসজিদের বাইরে লাউডস্পিকার বাজানোয় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। আরব দেশের স্থানীয় মিডিয়া অনুযায়ী, দেশের ইসলামিক বিষয়ক মন্ত্রী দ্বারা জারি করা সার্কুলারে মসজিদে কেবলমাত্র আজানের সময় আর সার্বজনীন প্রার্থনার সময় লাউডস্পিকার ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

সার্কুলার অনুযায়ী, নামাজের সময় লাউডস্পিকারের ব্যবহার শুধুমাত্র মসজিদের ভিতরেই করা যেতে পারে, তবে আওয়াজ অনেক কম হতে হবে। মন্ত্রালয় জানিয়েছে যে, এই নিয়মের লঙ্ঘন না করা কড়া শাস্তি দেওয়া হবে মসজিদ কর্তৃপক্ষকে।

সার্কুলার অনুযায়ী, সৌদি সরকার এই সিদ্ধান্ত পয়গম্বর মহম্মদের হাদিসের উপর ভিত্তি করে নিয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, ‘তোমরা সবাই চুপচাপ নিজের উপাসকের প্রার্থনা করছ। নামাজ পড়া অথবা ইবাদতের সময় একজনের আওয়াজ অন্যজনের আওয়াজের থেকে বেশি হওয়া উচিৎ নয়।”

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, মন্ত্রালয় দ্বারা শারিয়া নিয়ম লাগু করার পর শেখ মহম্মদ বিন সালেহ আর সালেহ বিন ফবজানের মতো ইসলাকিম স্কলারও এর সমর্থন করে জারি করেছেন। ফতোয়াতে আজান আর ইকামত (সার্বজনীন প্রার্থনা) ছাড়া মসজিদের বাইরের লাউডস্পিকার ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। ফতোয়ায় এও বলা হয়েছে যে, উচ্চ আওয়াজে মসজিদের পাশের আবাসনে থাকা রোগী, বয়স্ক মানুষ আর বাচ্চাদের ক্ষতি হতে পারে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

যদিও এটা প্রথম না যে সৌদি আরবের মন্ত্রাল দেশে মসজিদে লাউডস্পিকার ব্যান করা নিয়ে কথা বলল, এর আগে ২০১৯ সালে ইসলামিক বিষয়ক মন্ত্রী রমজান মাসে মসজিদে লাউডস্পিকারের আওয়াজ কম করতে বলেছিল।