Press "Enter" to skip to content

ফের উত্তাল বাংলাদেশ, নোয়াখালী ও বগুড়াতে লক্ষ্মী ও জগন্নাথ মূর্তি ভাঙচুর করল উগ্রপন্থীরা


বাংলাদেশে সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতন অব্যাহত। মন্দির ও পুজোমণ্ডপে হামলার ঘটনা সমানে চলছে। বুধবার, লক্ষ্মীপুজোর দিন বগুড়ায় লক্ষ্মী প্রতিমা ভাঙচুর করা হয়েছে। বুধবার গভীররাতে বগুড়া সদরের সাবগ্ নাথপাড়া মন্দিরে এই ধরনের ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার সকালে মন্দির পরিদর্শনে যান বগুড়ার জেলা প্রশাসক জিয়াউল হক এবং পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্তী। জেলা প্রশাসন এবং পুলিশের দুই শীর্ষ আধিকারিক সাংবাদিকদের বলেছেন, ঘটনায় জড়িতদের ের চেষ্টা চলছে।

লক্ষ্মী প্রতিমা ভাঙার ঘটনাকে ঘিরে পুনরায় অস্বস্তিতে পড়েছে হাসিনা । বগুড়া সদরের সাবগ্রাম নাথপাড়া মন্দির কমিটির সভাপতি রঞ্জন দেবনাথ বলেছেন,
দীর্ঘবছর ধরে মন্দিরে এবং লক্ষ্মীপুজোসহ অন্যান্য পুজো হয়ে থাকে। বুধবার রাত ১১টার দিকে মন্দির কমিটির সকলে বাড়ি ফিরে যান। বৃহস্পতিবার লক্ষ্মী প্রতিমা বিসর্জনের পূর্বপরিকল্পনা ছিল। কিন্তু সকালে স্থানীয় একজন মুদি দোকানদার বিপুল দেবনাথ ও কয়েকজন মন্দিরে ভগ্ন অবস্থায় লক্ষ্মী প্রতিমা দেখতে পেয়ে ৯৯৯-এ ফোন করেন ও স্থানীয় ইউনিয়ন চেয়ারম্যানকে বিষয়টি জানান।

পুলিশ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।বগুড়া সদর থানার (অফিসার ইনচার্জ) ওসি সেলিম রেজা বলেছেন, এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আমরা তদন্ত শুরু করেছি। জড়িতদের শনাক্তকরণের কাজ চলছে।

শুধুমাত্র বগুড়া নয়, শুক্রবার নোয়াখালীর জগন্নাথ মন্দিরেও ভাঙচুর করা হয়েছে। মন্দিরের বিগ্রহ ভাঙচুর সহ প্রায় দুকোটি টাকার সম্পদ লুট করা হয়েছে। পুরো ঘটনাটি ঘটানো হয়েছে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে। স্থানীয় হিন্দুদের অনুমান, মন্দির ভাঙার জন্য উপযুক্ত সরঞ্জাম নিয়েই উগ্রপন্থীরা হামলা করেছিল। এই ঘটনায় স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। যদিও এই বিষয়ে প্রশাসনের তরফে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করা হয়নি।