Press "Enter" to skip to content

ফের ভিক্ষার বাটি নিয়ে চীনের দরবারে ইমরান খান, যেভাবেই হোক টাকা আনার নির্দেশ আধিকারিকদের


নয়া দিল্লিঃখারাপ অর্থনীতির সম্মুখীন পাকিস্তান (Pakistan) খাদ্যাভাবের সংকটের পাশাপাশি বেকারত্বের চরম সমস্যার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। সন্ত্রাসবাদের কারখানা চালানো পাকিস্তানের অবস্থা এতটাই খারাপ হয়ে গিয়েছে যে, তাঁরা বারবার টাকার জন্য ভিক্ষা চাইছে। প্রতিবারের মতো পাকিস্তান চীনকে তাঁদের বাধ্যতার সুযোগ দেওয়ার জন্য আগ্রহী হয়ে উঠেছে। ইমরান খান () তাঁর অফিসারদের বলছেন যেভাবেই হোক চীনকে বিনিয়োগের জন্য প্রস্তুত করতে হবে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান দেশে শিল্পায়ন মজবুত করার জন্য আর দেশে বেড়ে চলা বেকারত্বের সমস্যা কমাতে বিনিয়োগ প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন। প্রতিবারের মতো এবারেও ইমরান খান এরজন্য সবথেকে বেশি আশা চীনের উপর করেছেন। অন্যদিকে, চীনের বর্ধিত ক্ষমতার কারণে দেশে অসন্তোষও সৃষ্টি হচ্ছে। কিন্তু ইমরান খান নিজের স্বভাব এবং ভিক্ষা চাওয়ার নীতি ছাড়তে নারাজ।

চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডর () অনুযায়ী তৈরি করা বিশেষ আর্থিক অঞ্চলে (SEZ) চীনের বিনিয়োগকারীদের বৈঠকে নেতৃত্ব করার সময় ইমরান খান পাকিস্তানের আধিকারিকদের বেশি করে চীনের বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করার জন্য জমি আর ট্যাক্সে ছাড় দেওয়ার অফার উপলব্ধ করার নির্দেশ দিয়েছেন।

ইমরান খান বলেছেন, ‘পাকিস্তানে শিল্পায়ন মজবুত করার জন্য বিনিয়োগের প্রয়োজন। আমাদের বর্ধিত জনসংখ্যার জন্য বেশি করে কাজের অবসর সৃষ্টি করতে হবে।” তিনি বলেন, ‘আমাদের দেশে জনসংখ্যার মধ্যে ৬৫ শতাংশ মানুষ ৩৫ বছর বা তাঁর কম বয়সী। তাঁদের জন্য কাজের সুযোগ দিতে হবে।”

ইমরান খান বলেন, অধিক সংখ্যক চীনা কোম্পানিকে পাকিস্তানে বিনিয়োগ এবং SEZ স্থাপনে আকৃষ্ট করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জমি, বিদ্যুৎ ও গ্যাস সংযোগ এবং কর প্রণোদনা প্রদানের সম্ভাব্য সব ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত।