Press "Enter" to skip to content

ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতিকে ক্ষমা চাইতে হবে, নাহলে বিরোধিতা জারি থাকবে: আরিফ মাসুদ, কংগ্রেস বিধায়ক


স্তরে ফ্রান্স ভারতের বিশ্বস্ত বন্ধু। UN তে ভারতের স্থায়ী সদস্য পদের জন্য আওয়াজ তোলা হোক বা যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে ভারতের পাশে দাঁড়ানো হোক সবক্ষেত্রেই ফ্রান্স এগিয়ে। মিরাজ, রাফলের মতো উন্নতমানের বিমান বেরোয় ফ্রান্সের থেকেই নিয়েছিল। চীনের সাথে ভারতের উত্তেজনার সময় ফ্রান্স ৫ টি রাফেল দ্রুত পাঠানোর জন্য প্রস্তুত হয়েছিল। ফ্রান্স ভারতের সব সময়ের বন্ধু এই কথা মাথায় রেখে ভারত সরকার সন্ত্রাসবাদে বিরুদ্ধে লড়াইতে ফ্রান্সের পাশে থাকার ঘোষণা করে দিয়েছে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ঘোষণা করেছেন ভারত ফ্রান্সের পাশে থাকবে। তবে এমন পরিস্থিতিতে ভারতে থাকা কিছু লোকজন ফ্রান্সের বিরুদ্ধে বিরোধিতায় নেমে পড়েছে। বৃহস্পতিবার কংগ্রেস বিধায়ক আরিফ মাসউদের নেতৃত্বে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শন হয়। বহু মুসলিম ের নেতৃত্বে জড়ো হয়েছিল যাদের মধ্যে প্রায়জনের মুখে মাস্ক ছিল না। মাসুদ বলেছেন, এই পরিস্থিতিতে ভারত সরকারের উচিত ভারতীয় মুসলিমদের পাশে দাঁড়ানো। নিজের নাগরিকদের সরকারের বেশি প্রাধান্য দেওয়া উচিত বলে মত প্রকাশ করেন কংগ্রেস বিধায়ক।

https://platform.twitter.com/widgets.js

আরিফ মাসুদ বলেছেন, আমরা কারোর ধর্মের বিরোধিতা করি না। যারা আমাদের ধৰ্মকে নিয়ে উপহাস করছে আমরা তাদের বিরুদ্ধে বিক্ষোপ প্রদর্শন করবেই। কংগ্রেস বিধায়ক বলেছেন, এটা আমাদের পার্টির কোনো বিক্ষোভ প্রদর্শন নয়। আরিফ মাসুদ বলেছেন, ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতিকে ক্ষমা চাইতে হবে। যদি উনি ক্ষমা না চান তাহলে আমাদের বিরোধিতা জারি থাকবে।

জানিয়ে দি, শিবরাজ সরকার কংগ্রেস বিধায়কের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। একই সাথে বিজেপি কংগ্রেসের উপর আক্রমণ করে বলেছে, আমরা জানতে চাই কংগ্রেস কি আতঙ্কবাদ, সন্ত্রাসের সমর্থন করে?