Press "Enter" to skip to content

ফ্রান্সের শহরের দেওয়ালে দেওয়ালে লাগানো হচ্ছে পয়গম্বর মোহম্মদের অজস্র বিতর্কিত কার্টুন


নয়া দিল্লীঃ ফ্রান্সে (France) পয়গম্বর মোহম্মদের কার্টুন বিবাদে এক শিক্ষকের করুণ পরিণতির পর দেশের মানুষের ক্ষোভ বেড়েই চলেছে। ফ্রান্সের শহর মন্টপিলিয়ার আর টাউলুসে প্রয়াত শিক্ষককে শ্রদ্ধাঞ্জলি দেওয়ার জন্য হোটেলের দেওয়ালে শার্লি হেবদোর বানানো পয়গম্বর মোহম্মদের বিতর্কিত কার্টুন প্রোজেক্টরের মাধ্যমে দেখানো হচ্ছে। শুধু তাই নয়, সেখানে সুরক্ষার জন্য প্রচুর পরিমাণে পুলিশও মোতায়েন করা হয়েছে।

ফ্রান্সের ওসিটনেই এলাকার সভাপতি ক্যারোল ডেলগা বুধবার ট্যুইটারে কার্টুন দেখানোর ঘোষণা করেন। উনি বলেন, শিক্ষক স্যামুয়েলকে শ্রদ্ধাঞ্জলি দেওয়ার জন্য পয়গম্বর মোহম্মদের বিতর্কিত কার্টুন দেখানো হবে। এর আগে ১৬ ই অক্টোবর ফ্রান্সে বাক স্বাধীনতার পাঠ পড়ানর সময় পড়ুয়াদের পয়গম্বর মোহম্মদের বিতর্কিত কার্টুন দেখানোর জন্য ইসলামিক কট্টরপন্থীর হাতে প্রাণ খোয়াতে হয়েছিল ওই শিক্ষককে।

ডেলগা এই ঘটনার প্রতিবাদে পয়গম্বর মোহম্মদের কার্টুন দেখানোর সমর্থন করেন। উনি বলেন, এটি একটি কঠোর পদক্ষেপ হবে, যেটি আমাদের দেশের মূল্যকে বোঝাতে সাহাজ্য করবে। ডেলগা বলেন, ‘এই প্রতীকী পদক্ষেপটি ছাড়াও আমি আমার সহকর্মীদের কাছে একটি বার্তা পাঠাতে চাই যে ধর্মনিরপেক্ষতা, মত প্রকাশের স্বাধীনতা এবং বিবেকের স্বাধীনতা নিয়ে কোনও আপস করা হবে না। এটিই আমাদের প্রজাতন্ত্রের মডেলের ভীত।”

ডেলগা বলেন, গণতন্ত্রের শত্রুদের সামনে মাথা নোয়াব না। যারা ধর্মকে যু’দ্ধের অস্ত্র হিসাবে ব্যবহার করে তাদের সামনে আমরা দুর্বল হব না। এই প্রজাতন্ত্রকে নষ্ট করার রাজনৈতিক উদ্দেশ্য আছে এমন লোকের সামনে রুখে দাঁড়াতে হবে। জানিয়ে দিই, ফ্রান্সের হোটেলগুলিতে খ্রিস্ট এবং অন্যান্য ধর্মের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের কার্টুনও প্রদর্শিত হচ্ছে।এর আগে ২০১৫ সালে শার্লি হেবদোর কার্টুন নিয়ে ফ্রান্সে তুমুল বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছিল। এরপর জ’ঙ্গিরা শার্লি হেবদোর অফিসে হাম’লা করে ১২ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছিল।