Press "Enter" to skip to content

ফ্রান্সের সামগ্রী বয়কটের বড়সড় অভিযান শুরু করল ইসলামিক দেশগুলো, যদিও বন্ধ থাকবে না ফ্রান্স যাওয়া


প্যারিস: ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে পয়গম্বরের কার্টুন দেখানোয় পর এক শিক্ষকের করুন পরিণতিতে ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতির তরফ থেকে বিতর্কিত মন্তব্যের পর মুসলিম মহলে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে ক্ষোভ বাড়ছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় মুসলিমরা ফ্রান্সের তৈরি সমস্ত উৎপাদন বয়কট করার ডাক দিয়েছে, আর এই নিয়ে তোড়জোড় করে অভিযানও চালানো হচ্ছে। এমনকি আরব দেশগুলো থেকেও ফ্রান্সের উৎপাদন বয়কট করার ডাক দেওয়া হয়েছে।

মুসলিম মহলে এবার ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতির নিন্দা করে ফরাসি সামগ্রী বহিস্কার করার অভিযান আরো দ্রুততর ভাবে চালাচ্ছে। বিশেষ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ফ্রান্স বিরোধী হাওয়া চালানো হচ্ছে। ফ্রান্সের সামগ্রী বহিস্কার করার জন্য বড়সড় অভিযান চালানো হচ্ছে মুসলিমদের পক্ষ থেকে।

মুসলিমদেশ গুলোর তরফ থেকে বহিস্কার আর সমালোচনার পর ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি দেশের ধর্মনিরপেক্ষতার ছবি তুলে ধরে একটি বয়ান জারি করেছেন। উনি বলেছেন, আমরা কখনো হেরে যাব না। আমরা শান্তি ভাবনার সাথে সমস্ত মতভেদের সন্মান করি। আমরা অভদ্র ভাষা স্বীকার করি না। আমরা সর্বদা মানবিক গরিমা আর সর্বজনীন মূল্যের পক্ষে থাকব।

আরেকদিকে, আরব দেশগুলোর পক্ষ থেকেও বিরোধিতা করা হয়েছে। কয়েকটি ইসলামিক দেশ ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতির বিরোধিতা করে বলেছে, ম্যাক্রোনের ইসলাম ধর্মের উপর এভাবে বিতর্কিত মন্তব্য ওনার অসহিষ্ণুতা আর ঘৃণার মনোভাব ফুটিয়ে তোলে। এটি ফ্রান্সের মতো একটি দেশের জন্য লজ্জাজনক।

জানিয়ে দিই, গত শুক্রবার ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি ম্যাক্রোন বিতর্কিত বয়ান দিয়ে বলেছিলেন যে, ইসলাম এমন একটি ধর্ম যার কারণে আজ গোটা বিশ্ব সঙ্কটে আছে। ওনার এই বয়ানের কারণে ইসলামিক দেশগুলো ওনার উপর চরম চটে যায়।