Press "Enter" to skip to content

বকরিঈদে গরু, বাছুর, উটের কুরবানি দেওয়া যাবে না! কড়া নিষেধাজ্ঞা কাশ্মীরে

নয়া ঃ বকরি ঈদের আগে কাশ্মীর প্রশাসন ‘কুরবানি” নিয়ে বড় পদক্ষেপ নিয়েছে। রাজ্যের পশুপালন আর মৎস্যপালন বিভাগ ঈদের অবসরে গরু, বাছুর, উটের কুরবানি দেওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। এই মামলায় পশুবিভাগ জম্মু-কাশ্মীরের কমিশনার আর আইজিপিকে একটি চিঠিও পাঠিয়েছে।

উল্লেখ্য, বকরি ঈদে অজস্র পশুর কুরবানি দেওয়া হয়। আর এবারও তেমন হওয়ার সম্ভাবনার আশঙ্কায় ের মৎস্য বিভাগ, পশুপালন আর ডেয়ারি মন্ত্রক ভারত সরকারের পশু কল্যাণ বোর্ডের তরফ থেকে রাজ্যে অবৈধ ভাবে পশুর কুরবানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করার জন্য একটি চিঠি লিখেছে।

চিঠিতে বলা হয়েছে যে, বকরি ঈদের অবসরে কেন্দ্র শাসিত জম্মু কাশ্মীরে কুরবানির জন্য অজস্র পশুর হত্যা করার সম্ভাবনা রয়েছে। আর সেটা দেখে পশু কল্যাণ বোর্ড অফ ইন্ডিয়া সমস্ত পর্যাপ্ত উপায় লাগু করার আবেদন জানিয়েছে। চিঠিতে পশু ক্রূরতা নিবারন অধিনিয়ম ১৯৬০, পশু পরিবহণ কল্যাণ নিয়ম ১৯৭৮, পশু পরিবহণ সংশোধিত নিয়ম ২০০১, কসাই খানা নিয়ম ২০০১ (এই আইনের অন্তর্গত কুরবানি দেওয়া যাবে না) কে কড়া ভাবে পালন করার জন্য নির্দেশ জারি করেছে মিউনিসিপ্যাল ল অ্যান্ড ফুড সেফটি স্ট্যান্ডার্স অফ ইন্ডিয়া।

https://platform.twitter.com/widgets.js

চিঠিতে বলা হয়েছে যে, পশুদের হত্যা থেকে রোখার জন্য পশু কল্যাণ আইনের সঙ্গে যুক্ত সমস্ত নিয়ম অনুযায়ী উপায় আপন করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও এই নিয়ম লঙ্ঘন করা অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। ওই চিঠির একটি কপি ভারতীয় পশু কল্যাণ বোর্ডের সভাপতির কাছে পাঠানো হয়েছে।

পশুদের কুরবানি রোখার জন্য রাজ্যের সমস্ত জেলা শাসক, কমিশনার, এসএমসি/জেএমসি, পশুপালন বিভাগের ডায়রেক্টর, জম্মু কাশ্মীর ভেড়া পালন বিভাগের ডায়রেক্টর, জম্মু কাশ্মীর পুরবোর্ডের ডায়রেক্টর এবং সমস্ত বরিষ্ঠ পুলিশ আধিকারিককে চিঠির একটি করে কপি পাঠানো হয়েছে।