Press "Enter" to skip to content

বকরি ঈদ আর আগস্টের শুক্রবার গুলো বাদ দিয়ে বেছে বেছে রাজ্যে লকডাউন ঘোষণা মমতার


কলকাতাঃ আজ নবান্ন থেকে সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্যে ের () ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী ()। আগামী মাসের দিন গুলোতে বেছে বেছে লকডাউন হচ্ছে। এর আগেই কলকাতার প্রাক্তন মেয়র ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছিলেন যে, ১লা আগস্ট বকরি ঈদের দিনে রাজ্যে লকডাউন থাকবে না। উনি জানিয়েছিলেন যে, কোন ধর্মকেই আঘাত করে রাজ্যে লকডাউন ডাকা হবে না।

এর আগে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব ঘোষণা করেছিলেন যে, রাজ্যে গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হয়েছে সেই জন্য সপ্তাহে দুই দিন করে রাজ্যে কড়া লকডাউন থাকবে। গত সপ্তাহের বৃহস্পতিবার এবং শনিবার রাজ্যের লকডাউনের ঘোষণা হয়েছিল। আর আজ মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী রাজ্যে আগামী আগস্ট মাসের লকডাউনের ক্যালেন্ডার ঘোষণা করলেন।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী জানান রাজ্যে সপ্তাহে দুইদিন করে লকডাউন থাকবে। তবে প্রতি সপ্তাহে একই দিনে লকডাউন ডাকা সম্ভব নয়। মূলত সপ্তাহে শনিবার ও রবিবার লকডাউন ডাকার পরিকল্পনা ছিল সরকারের তরফ থেকে। কিন্তু আগস্ট মাসে বেশ কয়েকটি শনি ও রবিবার স্বাধীনতা দিবস, মহমর, গণেশ পুজো থাকার কারণে প্রতি শনিবার, রবিবার লকডাউন ডাকা হচ্ছে না।

১৫ই আগস্ট স্বাধীনতা দিবস শনিবার, ২২ আগস্ট শনিবার গণেশ পুজো, ৩০ আগস্ট রবিবার মহমর থাকায় এই দিন গুলোতে লকডাউন থাকবে না। আরেকদিকে রাখি পূর্ণিমার জন্য ৩রা আগস্ট রাজ্যে লকডাউন রাখা হয়নি। এছাড়াও ১ লা আগস্ট শনিবার ঈদুজ্জোহা থাকার কারণে ওই দিন লকডাউন ডাকা হয়নি। তবে কাকতালীয় ভাবে আগস্ট মাসের শুক্রবার গুলোতে কোন লকডাউন নেই, আর এই নিয়ে প্রশ্ন তুলছে বিজেপি। তাঁদের মতে একটি বিশেষ সম্প্রদায়কে সুবিধা পাইয়ে দিতেই শুক্রবার লকডাউন রাখা হয়নি।

রাজ্যে আগস্ট মাসের ২, ৫, ৮, ৯, ১৬, ১৭, ২২, ২৩, ২৯, ৩০ তারিখে সম্পূর্ণ লকডাউন ডাকা হয়েছে। তবে পাঁচ তারিখের লকডাউন নিয়েও উঠছে প্রশ্ন। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে ৫ই আগস্ট রাম মন্দিরের শিলন্যাসের দিনে লকডাউন ডেকে মমতা ব্যানার্জী বিজেপিকে কড়া বার্তা দিতে চাইছেন।