Press "Enter" to skip to content

বর্ধমান পুরসভায় ২৩ কোটি টাকার দুর্নীতি, তৃণমূল নেতা বললেন ‘বিষয়টি সরকারের নিজস্ব ব্যাপার”


এমনিতে রাজ্যের শাসক দল ের (All India Trinamool Congress) বিরুদ্ধে একের পর এক দুর্নীতির অভিযোগ করে আসে বিরোধীরা। সরকারি প্রকল্প থেকে দুর্নীতি, চাল চুরি এসব এখন জলভাত। আর এরই মধ্যে এবার পুরসভার একটি দুর্নীতি প্রকাশ্যে আসায় ফের নতুন করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। কিছুদিন আগেই পুরসভার নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে, ঘোষণা হয়েছে ফলাফলও। এবার রাজ্যের বাকি পুরসভার নির্বাচনের প্রস্তুতি চলছে শাসক-বিরোধী দুই শিবিরেই। আর এরই মধ্যে এই দুর্নীতি প্রকাশ্যে আসায় শাসক দল তৃণমূল কিছুটা হলেও ব্যাকফুটে চলে গিয়েছে।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, বর্ধমান পুরসভার ( Municipality) অডিট রিপোর্টে ২৩ কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। শহরের বেশ কিছু জায়গায় বহুতল নির্মাণে কোটি কোটি টাকার আর্থিক দুর্নীতি হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছিল। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে, রাজ্যের প্রিন্সিপাল অ্যাকাউন্টেন্ট জেনারেলকে দিয়ে অডিট করানো হয়। সেই অডিট রিপোর্টেই ২৩ কোটি টাকা দুর্নীতির কথা উঠে আসে।

অডিট রিপোর্টে বর্ধমান পুরসভার আবাসন ও শপিং কমপ্লেক্স নির্মাণে ২৩ কোটি টাকার দুর্নীতি প্রকাশ্যে এসেছে। এছাড়াও অডিট রিপোর্টে তিন বছর আগে প্রায় ৪২ লক্ষ টাকার বিনিময়ে বেআইনি ভাবে ১০টি বহুতল নির্মাণ করার জন্য ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছিল, সেই তথ্যও উঠে এসেছে। এছাড়াও পিপিপি মডেলে আবাসন ও শপিং কমপ্লেক্স তৈরির জন্য টেন্ডার ডাকা নিয়েও দুর্নীতির কথা প্রকাশ্যে এসেছে।

এই বিষয়ে বর্ধমান পুরসভার উপ-প্রশাসক আইনুল হক বলেছেন, ২০১৮ সাল পর্যন্ত অডিট রিপোর্ট মিলেছে। বাকিটা নিয়ে আমি কোনও মন্তব্য করতে পারব না। তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র দেবু টুডু একটি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন যে, এই বিষয়টি সম্পূর্ণ সরকারের ব্যক্তিগত বিষয় ও অফিসিয়াল। অডিট রিপোর্টে কিছু থাকলে এর দায়িত্বে যারা রয়েছেন তাঁরাই বলতে পারবেন।