Press "Enter" to skip to content

বাংলাদেশের মতোই পশ্চিমবঙ্গেও ভাঙা হল দেবদেবীর মূর্তি, উৎসবের আগে থমথমে এলাকা


স্বরূপনগরঃ উত্তর ২৪ পরগনা জেলার স্বরূপনগরে দেবদেবীর মূর্তি ভাঙচুর করার ঘটনা নিয়ে উত্তেজনা ছড়াল। ঘটনার তদন্তে নেমে ক্ষতিগ্রস্ত মূর্তিগুলোকে করেছে । তবে, কে বা কারা এই কাজ করেছে, তা এখনও তদন্তে উঠে আসেনি।

উল্লেখ্য, রাত পোহালেই রাস উৎসব শুরু। আর সেই নিয়েই স্বরূপনগরে চলছিল শেষবেলার কাজ। রাতে প্রতিমা তৈরি করে অক্ষত অবস্থায় রেখে যাওয়া মূর্তিগুলো সকালে ভাঙচুর হয়েছে দেখে মাথায় হাত পড়ে এলাকার মানুষের। মূর্তির হাত, পা ভাঙা এমনকি মাথা পর্যন্ত কেটে ফেলে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। ঘটনা জানাজানি হতেই মানুষের মনে ক্ষোভের সঞ্চার হয় তথা তুমুল উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায়।

ঘটনার খবর যায় স্বরূপনগর থানাতে। খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছয় পুলিশ। সেখানে স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলেন পুলিশের কর্মীরা। এরপর ক্ষতিগ্রস্ত মূর্তিগুলোকে উদ্ধার করে নিয়ে যায় পুলিশ। গোটা ঘটনার তদন্তে নামলেও এই ঘৃণ্য কাজ কারা করেছে, তা এখনও জানতে পারেনি তদন্তকারী অফিসাররা।

উল্লেখ্য, এবারের দুর্গাপুজোয় বাংলাদেশে যা ঘটে গিয়েছে, তা নিয়ে আমরা কমবেশি সবাই অবগত। কুমিল্লার একটি দুর্গা মণ্ডপে রাখাকে কেন্দ্র করে উত্তাল হয়ে ওঠে গোটা বাংলাদেশ। ভেঙে ফেলা হয় একের পর এক মণ্ডপ ও দেবী মূর্তি। এখানেই থেমে থাকেনা সংখ্যালঘুদের উপর মৌলবাদীদের অত্যাচার। তাঁরা ইস্কন মন্দিরে হামলা করে সেখানেও ভাঙচুর চালায় আর এক সন্ন্যাসীকে হত্যা করে।

বাংলাদেশের এই ঘটনায় সরব হয়েছিল গোটা বিশ্বের হিন্দুরা। বিশ্বজুড়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষরা প্রতিবাদ মিছিলের আয়োজন করেছিল। বাংলদেশের এই সাম্প্রদায়িক ঘটনায় একদিকে যেমন বহু মানুষের প্রাণ গিয়েছে, তেমনই অন্যদিকে বহু হিন্দুদের ঘরবাড়িও পুড়িয়ে দিয়েছে মৌলবাদীরা। বাংলাদেশের সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই এবার সেই ঘটনারই ছায়া দেখা গেল এপার বাংলাতেও।