Press "Enter" to skip to content

বাংলাদেশের সনাতনীদের জন্য গর্জে উঠল জাপানের হিন্দুরা! পথে নেমে করল বিক্ষোভ প্রদর্শন

[ad_1]

বাংলাদেশে হিন্দু সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত নয় ত সম্প্রতি ঘটে যাওয়া ঘটনায় স্পষ্ট। হিন্দুদের নিরাপত্তার জন্য প্রশাসনের কাছে আর্জি জানিয়ে রবিবার টোকিওতে বিক্ষোভ প্রদর্শন হয়। প্রায় ৬০ জন বিক্ষোভকারী বাংলাদেশী দূতাবাসের কাছে জড়ো হয়েছিল এবং সম্প্রতি বাংলাদেশে ঘটমান সাম্প্রদায়িক অত্যাচার বন্ধ করার জন্য এবং সংখ্যালঘু হিন্দুদের জন্য ন্যায়বিচার চেয়ে প্ল্যাকার্ড হাতে তারা রাস্তায় নেমেছেন। ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’-এর মতো স্লোগান‌ও উঠে এসেছে তাদের গলায়।

অক্টোবরের মাঝামাঝি সময়ে দুর্গাষ্টমীর দিন থেকে, বাংলাদেশে সংখ্যালঘু হিন্দুদের ওপর সাম্প্রদায়িক নির্যাতন শুরু হয়েছে। ঘটনার সূত্রপাত, কুমিল্লায় একটি হিন্দু মন্দির ভাঙার মধ্যে দিয়ে। সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট ভাইরাল হওয়ার পরপরই প্রথম হামলা ঘটে। ঘটনার পরবর্তীতে, আরও হিন্দু মন্দির ও বাড়িঘর ভাংচুর করা হয়েছে, প্রায় এক সপ্তাহ ধরে চলা বিশৃঙ্খলায় বহু মানুষ আহত হয়েছে এবং কয়েকজন মারাও গিয়েছে।

টোকিওতে বসবাসকারী রোহান আগরওয়াল নামের একজন ভারতীয় নাগরিক, যিনি ইসকন সহ সংগঠনগুলির দ্বারা আয়োজিত বিক্ষোভে হাজির ছিলেন, তিনি বলেছেন,”ভারত, বাংলাদেশ এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সহ প্রায় ১৫০ টি দেশে অনুরূপ প্রতিবাদ হয়েছে।” নন্দী খোকন কুমার নামের একজন বলেছেন,”আমরা বাংলাদেশের সকল ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধে সমান অধিকার এবং এই ধরনের আক্রমণ বন্ধ করার দাবি জানাই।”

প্রতিবাদকারীদের মধ্যে একজন, যিনি মূলত বাংলাদেশের অধিবাসী কিন্তু বর্তমানে জাপানে থাকেন এবং টোকিওতে একটি বাণিজ্য সংস্থা পরিচালনা করেন৷ অনিল সরকার নামের সেই ব্যক্তি বলেছেন, “আমি আমার পরিবারকে নিয়ে দেশে ফিরতে ভয় পাচ্ছি।”বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় ধর্মীয় সহিংসতার বিরুদ্ধে গত সপ্তাহে শত শত মানুষ বিক্ষোভ মিছিল করেছে। স্থানীয় প্রশাসন সেই কারণে ইতিমধ্যে কয়েকজনকে গ্রেপ্তারও করেছে।

[ad_2]