Press "Enter" to skip to content

বাংলার ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে দুই হাজারের বেশি মহিলা আইনজীবীর চিঠি সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতিকে

নয়া দিল্লীঃ রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে বারবার সরব হয়েছে । দেশ তথা বিদেশে বাংলার ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে সরব হয়েছে এক শ্রেণীর মানুষ। জাতীয় মহিলা কমিশন এবং জাতীয় তফসিলি কমিশনের টিম বাংলায় এসে ভোট পরবর্তী হিংসার অভি খতিয়ে দেখে গিয়ে চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট পেশ করেছে। এমনকি বাংলার ের দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে দুটি মামলাও দাখিল হয়েছে।

আর এরই মধ্যে বাংলায় ভোট পরবর্তী হিংসা এবং আইনশৃঙ্খলার পরিস্থিতি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি এনভি রামানার কাছে অভিযোগ জানালেন গোটা দেশের দুই হাজারের বেশি মহিলা আইনজীবী। দেশের ২৮টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মোট ২ হাজার ৩৯ জন মহিলা আইনজীবী বাংলার হিংসা এবং ভেঙে পড়া শাসন ব্যবস্থার কথা উল্লেখ করে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি এনভি রামানার কাছে একটি চিঠি পাঠিয়েছেন।

একদিকে যখন বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের হয়েছে, তেমনই আরেকদিকে দেশের ২ হাজার ৩৯ জন মহিলা আইনজীবীর লেখা চিঠি সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতির কাছে গিয়েছে। সুপ্রিম কোর্টে দায়ের মামলা আগামী সপ্তাহে শুনানি হওয়ার কথা আছে, আর এরই মধ্যে মহিলা আইনজীবীদের এই চিঠি সেই মামলার ক্ষেত্রে বড় হাতিয়ার হতে পারে বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের।

আরেকদিকে, পশ্চিমবঙ্গের ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে চিঠি গেল স্বয়ং রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে। আইনজীবী, প্রাক্তন বিচারপতি, আমলা এবং রাষ্ট্রদূত সমেত ১৪৬ জন  বিশিষ্ট ব্যক্তি রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে চিঠি পাঠিয়ে পশ্চিমবঙ্গের বর্তমান পরস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন। চিঠিতে বলা হয়েছে যে, রাজ্যের বর্তমান পরস্থিতি খুবই উদ্বেগজনক। এই পরিস্থিতিতে মানুষকে বাঁচাতে রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন লাগু করতে হবে।