Press "Enter" to skip to content

বাংলায় ফের নারী নির্যাতন, আদিবাসী মহিলাকে ধর্ষণের চেষ্টায় পাশবিক অত্যাচার! ভিডিও ভাইরাল


জলপাইগুড়িঃ সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি অমানবিক হচ্ছে, যেখানে একটি নির্মীয়মাণ ফাঁকা বাড়ির ছাদে এক মহিলাকে অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে। আর তাঁর উপর অত্যাচার চালাচ্ছে এক ব্যক্তি। জলপাইগুড়ির বানারহাট থানা এলাকার এই ঘটনা শিউড়ে ওঠার মতো। মহিলার উপর অমানবিক অত্যাচারের হতেই অভিযুক্তকে করেছে পুলিশ।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, গত রবিবার জলপাইগুড়ির বানারহাটের এক মহিলাকে জোর করে মদ খাইয়ে তাঁর উপর নৃশংস অত্যাচার চালায় লক্ষ্মীকান্ত রায় নামের এক ব্যক্তি। অভিযুক্ত যখন আদিবাসী মহিলার উপর অত্যাচার চালাচ্ছিল, তখন একজন ব্যক্তি সেই ঘটনা নিজের মুঠোফোনে ধারণ করে। এরপর সে সেটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেয়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ভিডিও দেখে টনক নড়ে পুলিশের। এরপর অভিযুক্ত লক্ষ্মীকান্তকে বুধবার গ্রেফতার করে পুলিশ। এলাকার পঞ্চায়েত সদস্য দাউদ রাভা জানান, আদিবাসী মহিলা মঙ্গলকাটা রাভা বস্তিতে থাকেন। ওনাকে জোর করে মদ খাইয়ে মারধর করে ওই ব্যক্তি। মহিলাকে অর্ধনগ্ন করে লাথি, ঘুষি মেরে চরম অত্যাচার চালানো হয়।

দাউদ রাভা জানান, আদিবাসী মহিলার ডান হাত ভেঙে গিয়েছে। ওনার বুকেও গুরুতর আঘাত লেগেছে। ওনাকে ধর্ষণ করা হয়েছে কী না, সেটা পরীক্ষার পর জানা যাবে। ওনাকে মেডিক্যালের জন্য ে পাঠানো হয়েছে। অন্যদিকে অভিযুক্ত লক্ষ্মীকান্তকে আদালতে তুলেছে পুলিশ। তাঁকে জেল হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।