Press "Enter" to skip to content

বাঙ্গালুরু দাঙ্গার মূল ষড়যন্ত্রকারী সাদিক আলীকে গ্রেফতার করল NIA

 ের () রাজধানী ব্যাঙ্গালুরুতে () গত মাসে হওয়া হিংসা নিয়ে তদন্ত করা NIA () বৃহস্পতিবার ৩০ যায়গায় তল্লাশি অভজান চালিয়ে প্রধান ষড়যন্ত্রকারীকে গ্রেফতার করেছে। NIA যাকে গ্রেফতার করেছে, তাঁর নাম সৈয়দ সাদিক আলী বলে জানা গিয়েছে। সাদিক আলী একটি বেসরকারি ব্যাঙ্কের রিকভারি এজেন্ট। তদন্তকারী সংস্থা জানায় যে, সাদিক ১১ আগস্ট থেকে পালিয়ে বেড়াচ্ছিল।

জানিয়ে দিই, ব্যাঙ্গালুরুতে ৩ হাজারের বেশি মানুষ হিংসাত্মক হয়ে কংগ্রেস বিধায়ক অখণ্ড শ্রীনিবাস মূর্তি আর তাঁর বোনের বাড়িতে হামলা চালায়। আর পুলিশ স্টেশনেও হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা।

উল্লেখনীয়, তদন্তকারী সংস্থাকে কিছুদিন আগেই এই মামলার তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়। NIA জানায়, তল্লাশির সময় তাঁরা এয়ারগান, প্যালেট, ধারালো অস্ত্র, লোহার রোড, ডিজিটাল ডিভাইস, ডিবিআর আর অনেক বিতর্কিত নথী উদ্ধার করা হয়। এই সামগ্রী গুলো সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি আর পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়ার সাথে যুক্ত। NIA এই সমস্ত সামগ্রী গুলোকে বাজেয়াপ্ত করেছে।

জানিয়ে দিই, ব্যাঙ্গালুরুতে কংগ্রেস বিধায়কের ঘনিষ্ঠ এক আত্মিয় সোশ্যাল মিডিয়ায় উস্কানি মূলক পোস্ট করার পর শহরে হিংসা ছড়ায়।

এর আগে পুলিশ প্রমাণ পেয়েছিল যে, এই মামলার সাথে যুক্ত অনেক অভিযুক্ত অতীতে জঙ্গি অথবা সাম্প্রদায়িক হামলার সাথে যুক্ত ছিল। এরমধ্যে ২০১৪ সালে ব্যাঙ্গালুরুর চার্চ স্ট্রিটে বোমা বিস্ফোটও যুক্ত আছে। পুলিশ সুত্র থেকে জানা যায় যে, কেজি হল্লি এলাকায় দাঙ্গার সাথে যুক্ত ৩৮০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতার করা মানুষের মধ্যে অনেকেই এসডিপিআই আর আল হিন্দ সংগঠনের সাথে যুক্ত। আর এগুলো এক একটি কট্টরপন্থী সংগঠন হিসেবেই পরিচিত।