Press "Enter" to skip to content

বাদাম গানের ক্রেজ ছড়াল রানাঘাটে, রানু মণ্ডলের ‘কাঁচা বাদাম” গাওয়ার ভাইরাল ভিডিও

[ad_1]

কলকাতাঃ কেউ যদি প্রশ্ন করে ‘অউর জনাব, কিয়া চল রাহা হেয়”, তখন বাঙালীদের উত্তর একটাই আসবে যে, ‘হামারে ইয়াহ তো বাদাম চল রাহা হেয়”। হ্যাঁ, সত্যিই তাই চলছে, একটি বাদাম গানে এখন এপার বাংলা আর ওপার বাংলা এক হয়ে গিয়েছে। ফেসবুক, ইউটিউব খুললেই এখন একটাই গান ‘কাঁচা বাদাম”। বীরভূমের এক গ্রামে ভুবন বাদ্যকার নামের ফেরিওয়ালার গান এখন সবার মুখে মুখে।

চারিদিকে এই নিয়ে চলছে মিম, মজাদার ভিডিও। আবার বাদাম গানের ডিজেও বেরিয়েছে, যা নিয়ে মেতে আছে নেটিজেনরা। আর এবার সেই বাদাম গানে মাততে দেখা গেল রানাঘাটের রানু মণ্ডলকে। একসময় স্টেশনে ভিক্ষা করা রানু মণ্ডল এখন রীতিমত সেলিব্রিটি। এমনকি তাঁর জীবনী নিয়ে তৈরি হচ্ছে একটি সিনেমাও। আর সেই সেলেব রানুর কণ্ঠে বাদাম গান এখন আবার অনেককেই নতুন করে মাতিয়ে তুলছে।

তবে, এটাই প্রথম না যে রানু মণ্ডল কোনও ভাইরাল গানে গা ভাসিয়ে সেই গান নিজেই গাইলেন। এর আগে শ্রীলঙ্কার গায়িকার বিখ্যাত ‘মানিকে মাগে হিতে”ও গাইতে দেখা গিয়েছে রানুকে। আর এবার কাঁচা বাদাম গান নিয়ে ফের দর্শকের সামনে হাজির হলেন ‘তেরি মেরি কাহানী” খ্যাত রানু মণ্ডল।

অন্যদিকে, নেটদুনিয়ায় বাদাম গান নিয়ে হইচই পড়ে গেলেও, তাঁর কোন মূল্যই পাচ্ছেন না ভুবন বাদ্যকর। এমনটাই অভিযোগ করে এবার পুলিশের দারস্থ হলেন এই বাদাম বিক্রেতা। ভুবনবাবুর দাবী, ‘প্রচুর মানুষ ইউটিউবে এই গান গেয়ে প্রচুর টাকা রোজগার করছেন। কিন্তু আমি কিছুই জানতে পারছি না’।

গান ভাইরাল হওয়ার পর থেকে প্রতিদিনই তাঁর বাড়িতে হাজির হচ্ছেন অসংখ্য মানুষজন, রেকর্ডিং করছেন তাঁর গানের ভিডিও। আর সেগুলো স্যোশাল সাইটে ব্যবহার করেন অনেক অনেক টাকাও উপার্জন করছেন। আবার সেসবে নাকি কপিরাইটইও দেখাচ্ছে। কিন্তু সেসব বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না, তিনি নিজে কিছুই করেননি।

এদিন হেলমেট মাথায় দিয়েই থানায় এসেছিলেন ভুবনবাবু। তাঁর ধারণা, তাঁকে কেউ চিনতে পারলে, যদি কিডন্যাপ করে নিয়ে যায়, সেই কারণেই হেলমেট পরিধান করেই থানায় গিয়েছিলেন। আর থানায় গিয়ে তাঁর দাবী, পুলিশ তদন্ত করে তাঁর প্রাপ্যটুকু তাঁকে দিক।

[ad_2]