Press "Enter" to skip to content

বাড়ল চীনের চিন্তা, আরব সাগরে অত্যাধুনিক সরঞ্জাম নিয়ে যুদ্ধ অভ্যাস সারল ভারত-জাপান

নয়া দিল্লিঃ  ভারতীয় নৌসেনা (Indian Navy) আর জাপানি নৌসেনার (Japan Navy) মধ্যে সাগরে (Arabian Sea) ভারত-জাপান (-Japan) সামুদ্রিক দ্বিপাক্ষীয় যুদ্ধ অভ্যাসের পঞ্চম সংস্করণ শুক্রবার সমাপ্ত হল। এই অভ্যাস ৬ অক্টোবর থেকে শুরু হয়ে ৮ অক্টোবর পর্যন্ত চলল।

ওয়েস্টার্ন বিভাগের ফ্যাগ অফিসার কমান্ডিং রিয়ার অ্যাডমিরাল অজয় কোচারের নেতৃত্বে স্বদেশী গাইডেড মিসাইল স্টিলথ ডেস্ট্রয়ার কোচি আর গাইডেড মিসাইল রণতরী তেগ তিনদিনের এই যুদ্ধ অভ্যাসের প্রতিনিধিত্ব করে।

অন্যদিকে জাপানি নৌসেনার আত্মরক্ষা দলের তরফ থেকে রণতরী কাগা আর গাইডেড মিসাইল বিধ্বংসক মুরাসেম এই যুদ্ধ অভ্যাসে অংশ নেয়। এই যুদ্ধ অভ্যাসে রণতরী ছাড়া দূরপাল্লার সামুদ্রিক টহলদারি বিমান পি-৮১ আর যুদ্ধ বিমান মিগ-২৯ এবং অন্যান্য হেলিকপ্টারও যুক্ত ছিল।

উল্লেখ্য, চীনের বিস্তারবাদী নীতির জেরে ড্রাগনদের প্রতিবেশী দেশগুলি এক হওয়ার দিকে জোর দিচ্ছে। শুধু চীনের প্রতিবেশীই না, তাঁদের থেকে হাজার হাজার কিমি দূরে থাকা আমেরিকা ও বেজিংয়ের বিরুদ্ধে এক হওয়ার জন্য পদক্ষেপ নিয়েছে।

আর এই কারণে ভারত, জাপান, আমেরিকা ও অস্ট্রেলিয়া মিলে একটি চার দেশের সংগঠনও তৈরি করেছে, যার নাম দেওয়া হয়েছে কোয়াড। কিছুদিন আগে প্রধানমন্ত্রী আমেরিকা সফরে এই চার দেশের রাষ্ট্রপ্রধানরা এক সঙ্গে বৈঠক করে আগামী রণনীতি স্থির করেন।

কোয়াডের বৈঠক নিয়ে একদিকে চীন যেমন চটে ছিল, তেমনই তাঁরা আবার আতঙ্কেও ছিল। আর এই কারণে এই বৈঠক হওয়ার কিছু আগেই চীনের তরফ থেকে বয়ান জারি করে বলা হয়েছিল যে, কোনও সংগঠন যেন তৃতীয় পক্ষকে ক্ষতি করার জন্য পদক্ষেপ না নেয়। এতে আঞ্চলিক শান্তি ভঙ্গ হবে।