Press "Enter" to skip to content

বিকল হয়ে পড়ে রয়েছে পাকিস্তানের একাধিক সাবমেরিন, মাত্র দুটি দিয়েই চালাতে হচ্ছে কাজ


নয়া ভারতকে চ্যালেঞ্জ জানাতে প্রস্তুতি নেওয়া পাকিস্তানের নৌসেনার অবস্থা দিন দিন খারাপ হচ্ছে। প্রযুক্তিগত সমস্যা আর মিডলাইফ রিফিটের কারণে পাকিস্তানের মাত্র দুটি ডুবোজাহাজই কাজ করছে। মাত্র দুটি সাবমেরিন দিয়েই পাকিস্তান এখন সামুদ্রিক সীমান্ত সুরক্ষিত করছে পাকিস্তান।

পাকিস্তানের পাঁচটির মধ্যে তিনটি অগস্টা ক্লাস সাবমেরিন হয় আপগ্রেড করা হচ্ছে, নাহলে সেগুলিতে যান্ত্রিক সমস্যা দেখা দিয়েছে। আর এই কারণেই ওই তিনটি সাবমেরিক এখন সমুদ্রে নামছে না। আগামী বছরের মাঝামাঝি পর্যন্ত পাকিস্তানকে মাত্র দুটি সাবমেরিন দিয়েই কাজ চালাতে হবে।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, পাকিস্তানকে মাত্র দুটি সাবমেরিন অগস্টা ৯০-বি আর অগস্টা ৭০ দিয়েই আগামী বছরের মাঝামাঝি পর্যন্ত দেশের সুরক্ষা করতে হবে। শোনা যাচ্ছে যে, পাকিস্তানের অগস্টা ৭০ ক্লাসের সাবমেরিন পিএনএস হুরমতের ইঞ্জিনে সমস্যা দেখা দিয়েছে এছাড়াও তাঁরা ইলেকট্রনিক ওয়ারফায়ারেও সমস্যা দেখা দিয়েছে। আর এই কারণেই এখন ওই সাবমেরিন কাজ করার পরস্থিতিতে নেই।

পাকিস্তানের আরও একটি অগস্টা ৯০বি ক্লাসের পিএনএস সাদ ড্রাই ডকে রয়েছে, এপ্রিল থেকেই সেটিকে রিফিট করা হচ্ছে। আর ওটি সম্পূর্ণ ভাবে ঠিক হতে এখনও তিন বছর সময় লাগবে। তুর্কির একটি কোম্পানিকে এই সাবমেরিনের মেরামতের কাজ দেওয়া হয়েছে। ওই সাবমেরিনে সি হোক টরপিডো আর ৩ ক্রুজ লাগানোর কাজ চলছে বলে জানা গিয়েছে। তুর্কির ওই কোম্পানি পিএনএস খালিদেরও মেরামতি করছে।

পাকিস্তানের জন্য চিন্তার বিষয় হল, এখনও পর্যন্ত তাঁদের অষ্টম সাবমেরিনটি দেয়নি। আর এই কারণেই পাকিস্তানি আগামী প্রায় বছর খানেক মাত্র দুটি সাবমেরিন দিয়েই কাজ চালাতে হবে।