Press "Enter" to skip to content

বিগত ৩৫ দিনে ১০ টি মিসাইলের সফল পরীক্ষণ করল ভারতীয় বিজ্ঞানীরা! ভয়ে পেটে ব্যাথা শুরু জিনপিংয়ের

বিগত ১ মাস ধরে ীয় বিজ্ঞানীরা যেভাবে একের পর এক উপহার দেশবাসীকে দিয়ে চলেছে তা চীনের শ্বাস প্রশ্বাস আটকে দিয়েছে। দীপাবলীর আগেই উৎসবে মেতে উঠেছে। আসলে বিগত ৩৫ দিনে ১০ টি মিসাইল টেস্ট সম্পন্ন করেছে। যু’দ্ধকালীন পরিস্থিতিতে একটা দেশ যেভাবে কাজ করে ঠিক সেইভাবেই DRDO এর বিজ্ঞানীরা মিসাইল টেস্ট লঞ্চ ও টেস্টিং করতে লেগে পড়েছে।

DRDO বিগত ১ মাসে যে মিসাইল লঞ্চ করেছে বা পরীক্ষণ করেছে তাদের প্রত্যেকটির কাজ আলাদা আলাদা। অর্থাৎ প্রত্যেকটি মিসাইল আলাদা আলাদা দিক থেকে ভারতকর মজবুত করছে। ভারত HSTDV মিসাইল থেকে শুরু করেছিল যা নিয়ে বিশ্ব চর্চা তুঙ্গে পৌঁছেছিল। কারণ এই মিসাইলের টেস্টিং ইঙ্গিত দিয়েছে যে ভারত হাইপারসনিক মিসাইলের টেকনোলজি হাতের মুঠোয় করে নিয়েছে। প্রতিফলন হওয়া এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা মাত্র।

এরপর ভারত LGATGM, পৃথ্বী-২, রুদ্রম, শৌর্য এর মতো মিসাইলের লাগাতার সফল পরীক্ষন করে।
এখনও বঙ্গোপসাগরে এরিয়া ওয়ার্নিং জারি রয়েছে। যা আরো কোনো মিসাইলের টেস্টিং হওয়ার ইঙ্গিত দিচ্ছে। অনেকে অনুমান প্ৰকাশ করেছেন যে এবার প্রলয় মিসাইলের টেস্টিং হতে পারে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

ভারত লাগাতার একের পর এক যেভাবে মিসাইল টেস্ট করছে তাতে চীনের চিন্তা প্রবল হয়ে পড়েছে।
বিশেষ করে ভারত প্রলয় মিসাইল টেস্ট করতে পারে, এই চীন সরকারের মধ্যে হাহাকার ছড়িয়ে দিয়েছে। কারণ প্রলয় মিসাইল চায়না সেন্ত্রিক মিসাইল যা চীনের যে কোনো প্রান্তে ভ’য়াবহ ক্ষতি করতে সক্ষম।