Press "Enter" to skip to content

বিজেপির অভিযান ছত্রভঙ্গ হতেই নবান্নে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী


ঃ আজ বিজেপির (Bharatiya Janata Party) যুব মোর্চার ডাকে অভিযান ছিল। আর আজকের দিনেই করোনা ভাইরাসের কারণে নবান্নকে স্যানিটাইজ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় রাজ্যের তরফ থেকে। আর এই কারণে আজ এবং আগামীকাল পরপর দুদিন নবান্ন বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয় রাজ্যের তরফ থেকে। বিজেপির অভিযানের দিনে আচমকাই ের এই সিদ্ধান্ত নিয়ে অনেক জলঘোলা হয়েছে।

বিজেপির তরফ থেকে গতকাল থেকেই বলা হচ্ছে যে, মমতা ব্যানার্জী ( Banerjee) ভয় পেয়ে নবান্ন বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছিলেন। যদিও মমতা ব্যানার্জী আজ শহরেই ছিলেন না। উনি উত্তরবঙ্গ সফর শেষ করে দুদিনের খড়গপুর এবং ঝাড়গ্রাম সফরে ছিলেন। আর আজ তিনি ঝাড়গ্রাম থেকে সোজাসুজি নবান্নে চলে আসেন। এদিন দুপুরে হেলিকপ্টারে হাওড়া ডুমুরজলার একটি মাঠের অস্থায়ী হেলিপ্যাডে নামে. আর সেখান থেকেই তিনি নবান্নে যান।

যদিও ওনার নবান্নে ঢোকার আগেই বিজেপির অভিযান প্রায় শেষ মুহূর্তে চলে গিয়েছিলে। প্রাপ্ত খবর অনুজায় তিনি মাত্র চার মিনিটই নবান্নে ছিলেন এরপর তিনি নবান্ন থেকে সোজাসুজি ভবাণীভবন চলে যান। সেখানে পুলিশের ডিজি সহ বড়বড় আমলাদের সাথে বৈঠক করেন তিনি। এই বৈঠকে তিনি বিজেপির নবান্ন অভিযান নিয়ে বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করেন। সুত্রের খবর অনুযায়ী, তিনি ভবাণীভবনে বিজেপির নবান্ন অভিযানের ভিডিও ফুটেজ খতিয়ে দেখেন।

উল্লেখ্য, আজ বিজেপির নবান্ন অভিযান নিয়ে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় ময়দান সহ কলকাতার কিছু এলাকা। বিজেপির তরফ থেকে পুলিশের বিরুদ্ধে বড়সড় অভিযোগ করা হয়। বিজেপির জানায় যে, পুলিশ আর গুণ্ডারা মিলে বিজেপির শান্তিপূর্ণ মিছিলে বোমা করে। আরেকদিকে, পুলিশ জানায় যে বিজেপির মিছিলে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার হয়েছে।