Press "Enter" to skip to content

বিজেপির সঙ্গে জোট করে কংগ্রেসকে হারাল শিবসেনা, তুলকালাম কাণ্ড মহারাষ্ট্রে

[ad_1]

ঔরঙ্গাবাদঃ আজব রাজনীতি চলছে মহারাষ্ট্রে। সেখানে শিবসেনা রাজ্যের মহা বিকাশ আঘাদি (MVA) সরকার চালাচ্ছে। জাতীয়তাবাদী কংগ্রেস পার্টি (NCP) এবং কংগ্রেস তাকে সমর্থন করছে। কিন্তু ঔরঙ্গাবাদে (Aurangabad) এই শিবসেনা (Shiv Sena) বিরোধী দল ভারতীয় জনতা পার্টির সঙ্গে হাত মিলিয়েছে, যাতে কংগ্রেসকে পরাজিত করা যায়।

বিষয়টি ঔরঙ্গাবাদের দুধ উৎপাদনকারী সমিতির নির্বাচনের সঙ্গে জড়িত। মর্যাদাপূর্ণ এই কমিটির ১৪টি আসনে রবিবার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ১৪টি আসনের মধ্যে শিবসেনা-বিজেপি জোট ৬টি আসন জিতেছে। এরপর কমিটির সভাপতি হিসেবে হরিভাউ বাগদেকে রাজ্যাভিষেকের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। হরিভাউ বিজেপির নেতা। এর আগে তিনি মহারাষ্ট্র বিধানসভার স্পিকার ছিলেন।

বাগদে নিজেও নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সুরেশ পাঠাদে-র ৬৫ ভোটের বিপরীতে তিনি ২৭৫ ভোটে জিতেছেন। ‘টাইমস অফ ইন্ডিয়া’ অনুযায়ী, এই নির্বাচনে কংগ্রেস-সমর্থিত প্রার্থীদের পরাজিত করার জন্য বাগদে নেতৃত্বাধীন প্যানেলকে সমর্থন করেছে শিবসেনা বিধায়ক আবদুল সাত্তার। সাত্তার রাজ্য সরকারের একজন মন্ত্রীও।

দুটি পরস্পর বিরোধী শক্তি হলেও কংগ্রেসকে হারাতে তাঁরা একসঙ্গে হয়েছিল। মজার বিষয়ও হল যে, আবদুল সাত্তা অতীতে এই নিয়ে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। তিনি ইঙ্গিত দিয়েছিলেন যে, মহারাষ্ট্রে শিবসেনা এবং বিজেপি আবারও এক হতে পারে। অন্যদিকে, শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে শিবসেনার প্রতিষ্ঠাতা বাল ঠাকরের জন্মবার্ষিকীতে আয়োজিত অনুষ্ঠানে শিব সৈনিকদের উদ্দেশে উদ্ধব বলেছিলেন, ‘বিজেপির নীতি হল মিত্রদের ব্যবহার করা এবং ছেড়ে দেওয়া। শিবসেনা তার সঙ্গে জোট করে ২৫ বছর নষ্ট করেছে।”

[ad_2]