Press "Enter" to skip to content

বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়ে টুইটারে বোমা ফাটালেন রাজীব ব্যানার্জী


 নির্বাচনের আগে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে দিয়েছিলেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় (Rajib Banerjee)। বিধানসভা থেকে পদত্যাগ করার সময় তৃণমূল নেত্রী ের ছবি বুকে করে নিয়ে এসেছিলেন তিনি। সেদিন তিনি বলেছিলেন, তৃণমূল নেত্রীকে আজীবন সম্মান করে যাব। এরপর বিজেপির দেওয়া টিকিটে নিজের কেন্দ্র হাওড়ার ডোমজুর থেকে প্রার্থী হন রাজীববাবু। কিন্তু ৪০ হাজারেরও বেশী ে তৃণমূল প্রার্থীর কাছে পরাজিত হন তিনি।

নির্বাচনে হারের পর থেকেই ওনাকে আর সেভাবে রাজনীতিতে দেখা যায়নি। ওনার রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নিয়ে একবার প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেছিলেন, ‘বর্তমানে এখন আমাদের করোনার সঙ্গে লড়তে হবে। এই সময় রাজনীতি নিয়ে মাথা ঘামাতে চাই না।” বিজেপির থেকে দুরত্ব বজায় রাখার জন্য ওনাকে নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই নানান জল্পনা চলছিল। আর এবার সেই জল্পনার আগুনে ঘি ঢাললেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

https://platform.twitter.com/widgets.js

সম্প্রতি তিনি নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে একটি পোস্ট করে রাজ্য রাজনীতিতে তুলকালাম কাণ্ড বাঁধিয়ে দিয়েছেন। তিনি টুইটারে ছবি পোস্ট করে লেখেন, ‘ সমালোচনা তো অনেক হল। মানুষের বিপুল জনসমর্থন নিয়ে আসা নির্বাচিত সরকারের সমালোচনা ওন মুখ্যমন্ত্রীর বিরোধিতা করতে গিয়ে কথায় কথায় দিল্লী আর ৩৬৫ ধারার জুজু দেকালে বাংলার মানুষ ভালোভাবে নেবে না।”

রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় আরও লেখেন, ‘আমাদের সকলের উচিৎ রাজনীতির উর্দ্ধে কোভিড ও ইয়াস এই দুর্যোগে বিপর্যস্ত বাংলার মানুষের পাশে থাকা।” রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই পোস্টের পর রাজ্য রাজনীতিতে আবারও নতুন করে জল্পনার সৃষ্টি হল। তাহলে সোনালী-সরলাদের মতো উনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্নেহতলে যেতে চাইছেন? সেটা নিয়েই উঠছে প্রশ্ন।