Press "Enter" to skip to content

বিদেশী কোম্পানির উপর নির্ভরতা শেষ! এবার ইন্ডিয়ান এয়ারফোর্সের জন্য বিমান নির্মাণ করবে টাটা গোষ্ঠী

ভারত আত্মনির্ভর হওয়ার লক্ষে তীব্রগতিতে অগ্রসর হচ্ছে। সীমান্তে চীনের সঙ্গে সংঘাতের আবহের পর গত বছর থেকেই তীব্র শক্তি বৃদ্ধি করে চলেছে ভারতীয় বায়ুসেনা। অত্যাধুনিক সমরাস্ত্রের যোগানে আরও শক্তিশালী হয়ে উঠছে ভারতীয় বায়ুসেনাও। ইতিমধ্যেই ফ্রান্স থেকে পৌঁছেছে শক্তিশালী যুদ্ধবিমান । আমেরিকা থেকে আনা হয়েছে ফাইটার কপ্টার। এবার স্পেনের সঙ্গে বড়সড় চুক্তি কররেছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক।

কমবে কোম্পানির উপর নির্ভরতা

২০ হাজার কোটি টাকার চুক্তি স্বাক্ষর এর মধ্যেই হয়ে গিয়েছে। প্রতিরক্ষা মন্ত্র সূত্রে প্রাপ্ত খবর, স্পেন ভিত্তিক সংস্থা ‘এয়ারবাস ডিফেন্স অ্যান্ড স্পেস’-এর সঙ্গে চুক্তি হয়েছে। এই সংস্থার সঙ্গে যৌথভাবে ভারতীয় বায়ুসেনার জন্য বিশেষ গুণাবলীসম্পন্ন তৈরি করবে টাটা গোষ্ঠী ()। আগামী ১০ বছরে স্পেনের এই বিমান নির্মাতা সংস্থার সঙ্গে Tata Advanced Systems যৌথভাবে ভারতের জন্য মোট ৪০টি সি-২৯৫ মাঝারি ক্ষমতাসম্পন্ন সামরিক পরিবহণ বিমান বানাবে। ভারতীয় কোম্পানির হাতে টেকনোলজি এলে তাতে যে বিদেশি সংস্থার নির্ভরতা কমবে তাও স্পষ্ট।

চুক্তি নিয়ে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তুলে ধরেছে ‘টাটা অ্যাডভান্সড সিস্টেমস লিমিটেড’ (টিএএসএল)। ৫ থেকে ১০ টন সমরাস্ত্র পরিবহনের ক্ষমতাসম্পন্ন হবে বিমানগুলি। স্পেনীয় এই বিমানগুলি ভারতীয় বায়ুসেনার পাঁচ দশকের পুরনো অ্যাভ্রো-৭৪৮-এর উত্তরসূরী হিসাবেই কাজ করবে। অর্থাৎ, অ্যাভ্রো-৭৪৮-র যে যে বিশেষ গুণা ছিল এই নয়া বিমানেও সেই একই গুণাবলী এডভান্সড রূপে থাকবে।

এই চুক্তি নিয়ে দীর্ঘদিন আলোচনা চললেও তা ্তাবায়িত হচ্ছিল না জটিলতার কারণে। অবশেষে সেই সমস্যা মিটেছে। সেপ্টেম্বরের শুরুর দিকেই স্পেন থেকে ৫৬টি সি-২৯৫ পরিবহণ বিমান কেনার প্রস্তাবে রাজি হয় কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভার নিরাপত্তা বিষয়ক কমিটি।নয়া চুক্তি নিয়ে টুইট করেছেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের মুখপাত্র এ ভারতভূষণ বাবুও।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে খবর, আগামী ৪ বছরের মধ্যেই ভারতীয় বায়ুসেনাকে আরও শক্তিশালী করতে ভারতে এসে পৌঁছাবে ১৬ উড়ান-সক্ষম সি-২৯৫ বিমান। বাকি বিমানগুলি আগামী ১০ বছরের মধ্যে ধীরে ধীরে স্পেনের সংস্থার সঙ্গে যৌথভাবে বানাবে টাটা অ্যাডভান্সড সিস্টেমস লিমিটেড।