Press "Enter" to skip to content

বিপর্যয়ে বিরোধিতা ভুলে রাজ্য সরকারের সঙ্গে মিলেমিশে কাজ করার বার্তা দিলীপ ঘোষের


কলকাতাঃ ঘূর্ণি ইয়াস (Yaas Cyclone) মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের তরফ থেকে যে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, তাতে খুশি জাহির করলেন বঙ্গ সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। এই দুর্ের মধ্যে বিরোধিতা বাদ দিয়ে রাজ্য সরকারের প্রশংসা করা দিলীপ ঘোষের মতে, তাঁরা দায়িত্বশীল বিরোধী দল হিসেবে নিজেদের প্রোজেক্ট করতে চায়। এর আগে মঙ্গলবার নবান্নে যান রাজ্যের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। তিনি নবান্নে যাওয়ার আগে আলিপুর আবহাওয়া দফতরেও যান। নবান্নে গিয়ে রাজ্য সরকারের প্রস্তুতি খতিয়ে দেখেন তিনি। এরপর বিপর্যয় মোকাবিলায় রাজ্য এবং কেন্দ্র সরকারের একসঙ্গে কাজ করার পদক্ষেপের প্রশংসাও করেন তিনি।

আরেকদিকে, ইয়াস মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের ভূমিকার প্রশংসা করে দিলীপ ঘোষ বলেছেন, ‘ থেকে শিক্ষা নিয়ে এবার রাজ্য সরকার যথেষ্ট পদক্ষেপ নিয়েছে। উপকূলবর্তী এলাকার মানুষদের ঝড় সম্পর্কে সচেতন করার কাজ জোরকদমে চালানো হয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে। তবে শেষ পর্যন্ত কী হয়, সেটাই দেখার বিষয়। এখনও পর্যন্ত সবই ঠিকঠাক চলছে।”

গতবারের আমফানের সময় রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে মোর্চা খুলেছিল বিজেপি। চারিদিকে অনিয়ম এবং আগে থেকে প্রস্তুতি না নেওয়ার অভিযোগ করা হয়েছিল বিজেপির পক্ষ থেকে। তবে এবার সম্পূর্ণ বিপরীত পথে হেঁটে রাজ্য সরকারকে সহযোগিতার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাঁরা। বিজেপির এক শীর্ষ নেতা জানান, ‘সবকিছুতেই যদি বিরোধিতা করি, তাহলে মানুষের কাছে বিরোধী দলের সম্মান কমে যাবে। ঝড়ের পর সরকারের পদক্ষেপে কোনও গলদ পাওয়া গেলে সেটা নিয়ে সরব হওয়া যাবে, তাঁর আগে এখন উচিৎ সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার।”

ইয়াস চলে যাওয়ার পর মানুষের পাশে দাঁড়ানো নিয়ে রণনীতি তৈরি করেছে বিজেপি। সোমবার বঙ্গ বিজেপির সাংসদদের সঙ্গে এই নিয়ে ভার্চুয়াল মিটিং করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি । তিনি দলের সমস্ত নেতা-কর্মীদের সর্বশক্তি দিয়ে বিপর্যয় মোকাবিলায় ঝাঁপিয়ে পড়ার নির্দেশ দিয়েছেন। মঙ্গলবার বিজেপির বিভিন্ন জেলার নেতাদের নিয়ে বৈঠক করেন দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, ‘আমরাও প্রস্তুত, আমাদের কর্মীরা তৈরি আছে। উপকূলবর্তী এলাকার মানুষকে নিরাপদে অন্যত সরিয়ে নিয়ে যাওয়া আমাদের কাজ। ঝড় চলে গেলে দায়িত্ব আরও বাড়বে।”