Press "Enter" to skip to content

বিপিন রাওয়াতের মৃত্যু নিয়ে মজা! ক্ষোভে ইসলাম ছেড়ে হিন্দু হচ্ছেন জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত পরিচালক

[ad_1]

নয়া দিল্লিঃ CDS বিপিন রাওয়াত (Bipin Rawat) সমেত ১৩ জনের প্রয়াণে একদিকে যেমন দেশবাসীরা শোকে স্তব্ধ, তখন আরেকদিকে কিছু মানুষ এনাদের প্রয়াণে উৎসব পালনে ব্যস্ত। আর এই ঘটনাতেই ব্যথিত হয়ে কেরলের (kerala) মলয়ালি পরিচালক (Indian film director) আলি আকবর (Ali Akbar) ইসলাম ধর্ম ত্যাগ করে হিন্দু ধর্ম গ্রহণের ঘোষণা করেছেন। ফেসবুক লাইভে পরিচালক জানিয়েছেন যে, তিনি ইসলাম ত্যাগ করতে চলেছেন।

আলি আকবর জানিয়েছেন, ভারতের প্রথম ভিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াত মর্মান্তিক হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় প্রয়াত হওয়ার পর কিছু মানুষ ফেসবুক এবং বাকি সোশ্যাল মিডিয়ায় উল্লাস করছেন। আর এই কারণেই আমি ইসলাম ত্যাগ করতে চলেছি। ওনার নিশানায় যে দেশের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষেরাই ছিল, সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

রিপোর্ট অনুযায়ী, ৮ ডিসেম্বর ২০২১-এ বিপিন রাওয়াতের মৃত্যুর পর আকবর ফেসবুকে লাইভে আসেন। তবে ওনার অ্যাকাউন্টে রিপোর্ট পড়ার কারণে সেটি একমাসের জন্য বন্ধ করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এরপর পরিচালক দ্বিতীয় আরেকটি অ্যাকাউন্ট বানিয়ে সেখান থেকে ইসলাম ত্যাগ করে হিন্দু হওয়ার কথা ঘোষণা করেন।

ফেসবুকের মাধ্যমে সিডিএস রাওয়াতকে শ্রদ্ধা জানানো চলচ্চিত্র পরিচালক বলেছেন, “এটি মেনে নেওয়া যায় না। তাই আমি আমার ধর্ম ত্যাগ করছি, আমার বা আমার পরিবারের অন্য কোন ধর্ম নেই। “আমি যে জামা নিয়ে জন্মেছিলাম তার একটি টুকরো আমি ফেলে দিচ্ছি,”। প্রকৃতপক্ষে, যখন চলচ্চিত্র পরিচালক সিডিএস রাওয়াতের মৃত্যুতে লাইভ ভিডিও তৈরি করা শুরু করেন, তখন উগ্র ইসলামপন্থীরা তার ভিডিওতে হাজার হাজার হাসির ইমোজি স্থাপন করে মজা করে, যা তার অনুভূতিতে আঘাত করেছিল।

এই বিষয়ে টুইটার ব্যবহারকারী প্রতিশ বিশ্বনাথ বলেছেন যে বিখ্যাত মালায়ালাম চলচ্চিত্র পরিচালক আলি আকবর হিন্দু ধর্মে ধর্মান্তরিত হচ্ছেন এবং নিজের নাম পরিবর্তন করে রামসিমহান রাখছেন। ইসলামের বর্তমান প্রজন্ম, যাদের পূর্বপুরুষরা জোরপূর্বক ধর্মান্তরিত হয়েছিল, তাঁরা শিকড়ে ফিরে আসছে দেখে খুবই ভালো লাগছে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

[ad_2]