Press "Enter" to skip to content

বিরোধিতা করতে গিয়ে অশোক স্তম্ভকে চরম অপমান করল দেবাংশু, ধুয়ে দিল নেটিজেনরাও

Kolkata:প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নিজের তিন দিবসিয় যাত্রায় আমেরিকায় পৌঁছেছেন। এই সফরে তিনি মার্কিন রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন, উপরাষ্ট্রপতি কমলা হ্যারিস, অস্ট্িয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন সহ বিভিন্ন দেশের নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। তাছাড়াও রাষ্ট্রসংঘের মহাসভাতেও তিনি ভাষণ দেবেন। কোয়াড দেশের সম্মেলনে অংশ নেওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আমেরিকার বিভিন্ন কোম্পানির সিইওদের সঙ্গেও কথা বলবেন বলে জানা গিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বুধবার নিজের আমেরিকার সদরের সময় বিমানের ভিতরের ঝলক পেশ করে একটি ছবি ট্যুইট করেন। ঐ ছবিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে নিজের আসনে বসে কাজের উপযোগী ফাইলগুলিকে মনো দিয়ে দেখতে দেখা যাচ্ছে। উনি ট্যুইটে লেখেন, ‘দীর্ঘ সফরে ফাইল দেখার অনেক সময় পাওয়া যায়।” বলে দি, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বুধবার দিল্লি থেকে এয়ার ফোর্স-১ বোইং ৭৭৭-৩৩৭ বিমানে করে আমেরিকার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী ওনার ওই সফরের ছবি বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন, যা রীতিমত ভাইরালও হয়ে গিয়েছে। আর সেই ভাইরাল ছবিতে সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহারকারীরা নিজের মতো করে কমেন্টও করছেন। কখনও সাধুবাদ দেওয়া হচ্ছে, আবার কখনও প্রধানমন্ত্রীকে ট্রোলও করা হচ্ছে। তবে সেখানে একটি কমেন্ট সবারই দৃষ্টিকটু লেগেছে।

দৃষ্টিকটু লাগাটাই স্বাভাবিক, কারণ বিরোধিতা করতে গিয়ে দেশের সম্মান ‘অশোক স্তম্ভ” চিহ্নকে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য করা হয়েছে। ওই মন্তব্য করেছেন তৃণমূলের যুব নেতা তথা মুখাপাত্র । তিনি খালি চোখে বা এক নজরে হয়ত অশোক স্তম্ভ চিহ্নটি না বুঝতে পেরে এমন কমেন্ট করে ফেলেছেন।

দেবাংশুর সেই কমেন্টের পর অনেকেই ওনাকে রিপ্লাইও দিয়েছেন। সবাই ওনাকে নিজের রিপ্লাইতে কটাক্ষ করেছেন। কারণ, তৃণমূল নেতা বিরোধিতার খাতিরে এমন কমেন্ট করেছেন, যা সকলে মেনে নিতে পারেন নি।