Press "Enter" to skip to content

বিশ্বভারতীর পড়ুয়ারা পাতা খাচ্ছে, রবীন্দ্রনাথ বেঁচে থাকলে সুইসাইড করতেনঃ অনুব্রত মণ্ডল


বোলপুরঃবিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় (Visva-Bharati University) নিয়ে তৈরি হওয়া বিতর্ক যেন থামার নামই নিচ্ছে না। আর বারবার সেই বিতর্কের মধ্যে আসরে নামছেন জেলার সভাপতি । কখনও মেলার মাঠে পাঁচিল, আবার কখনও ছাত্র-অধ্যাপককে বরখাস্ত করার ঘটনায় বারবার শিরোনামে উঠে আসছে বিশ্বভারতী। আর এবার এই বিশ্বভারতীর বিরুদ্ধেই মারাত্মক অভি করে বসলেন মণ্ডল।

মঙ্গলবার বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় ও গীতাঞ্জলি প্রেক্ষাগৃহ কলেজের অধ্যাকপদের একটি সম্মেলনে অংশ নিয়েছিলেন অনুব্রত মণ্ডল। সেখানে তিনি আক্ষেপ করে বলেন, আমার মেয়েকে আমি বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি করাতে চেয়েছিলাম। কিন্তু পারিনি।

এরপরই তিনি বলেন, এখন বিশ্বভারতীর বিরুদ্ধে নানান অভিযোগ পাচ্ছি। এখানে অনেক নেশাখোর তৈরি হয়ে গিয়েছে। পাতা খাচ্ছে ছেলেরা। মেয়েরাও পিছিয়ে নেই। এসব শুনে হতাশ আমি। এই সময় রবীন্দ্রনাথ (Rabindranath Tagore) বেঁচে থাকলে মনে হয় সুইসাইড করতেন।

বোলপুরে একটি বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজ গড়া নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই বিতর্ক চলছে। ওই বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ তুলে রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে একহাতে নিয়েছিলেন । আর এবার সেই মেডিক্যাল কলেজ নিয়ে মুখ খুললেন অনুব্রত।

অনুব্রত মণ্ডল বলেন, বোলপুরের মেডিক্যাল কলেজ আমার স্বপ্ন। আমি নিজে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে এই মেডিক্যাল কলেজ গড়ার জন্য দাবি করেছিলাম। সেই মতেই ফুলপুরে একটি মেডিক্যাল কলেজ তৈরি হয়। আমার স্বপ্ন আর মুখ্যমন্ত্রীর ইচ্ছে দুটোই পূরণ হয়েছে।