Press "Enter" to skip to content

বুধবার অবধি জেল হেফাজতে চার অভিযুক্ত! কান্নায় ভেঙে পড়লেন ফিরহাদ হাকিম



নারদ কাণ্ডে অভিযুক্ত চার তৃণমূল নেতার জমিনের খবর সামনে এসেছিল। এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই তৃণমূলের কর্মী সমর্থকদের নিজাম প্যালেসের সামনে অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। তবে রাতের দিকে এমন খবর আসে যা তৃণমূল নেতাদের চিন্তা বাড়িয়ে দেয়।

আসলে কলকাতা নিন্ম আদালতের জমিন নির্দেশের উপর স্থগিতাদেশ জারি করে। ফলস্বরূপ রাতেই প্রেসিডেন্সি জেলে রাখা হয় তৃণমূলের চার নেতাকে। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, চার নেতাকে বুধবার অবধি জেল হেফাজতে থাকতে হবে।

এই খবর রীতিমতো চাপে ফেলে তৃণমূল কংগ্রেসকে। কান্নায় ভেঙে পড়েন। হাকিম বলেন যে তাকে কলকাতা কোভিড পরিস্থিতি সামলানোর জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল কিন্তু কলকাতার মানুষকে বাঁচাতে দেওয়া হলো না। কেন জামিন থেকে বঞ্চিত হলাম, প্ৰশ্ন তোলেন তৃণমূল নেতা ফিরহাদ হাকিম। অন্যদিকে মদন মিত্র বলেন, আমরা খারাপ কিন্তু শুভেন্দু মুকুলরা ভালো।

প্রেসিডেন্সি জেলে নিয়ে যাওয়ার সময় ফিরহাদ হাকিম বলেন যে তার আইনি ব্যবস্থার উপর আস্থা রয়েছে। প্রসঙ্গত, সোমবার সকাল থেকে নারদ কান্ডের অভিযুক্তদের িকে কেন্দ্র করে রাজ্য তোলপাড় ছিল। চার অভিযুক্তকে হেফাজতে নেওয়ার পর নিজাম প্যালেসে গিয়ে পাথরবাজি করে তৃণমূল কর্মীরা।