Press "Enter" to skip to content

বেজিং থেকে পাকিস্তান পর্যন্ত ধ্বংস করার ক্ষমতা সম্পন্ন K-4 ব্যালিস্টিক মিসাইলের সফল হল দ্বিতীয় পরীক্ষণ

চীনের রাজধানী () থেকে ের () সমস্ত শহর ধ্বংস করার খমতা রাখা স্বদেশী K-4 ব্যালিস্টিক মিসাইলের ডুবোজাহাজ সংস্করণ বিগত ছয় দিনে দ্বিতীয় বার সফল পরীক্ষণ করা হয়েছে। প্রতিরক্ষা সুত্র অনুযায়ী, ভারত বিশাখাপট্টনামের উপকূল থেকে ৩৫০০ কিমি পর্যন্ত আঘাত হানতে পারা K-4 ব্যালিস্টিক মিসাইলের সফল পরীক্ষণ করে। ডিআরডিও দ্বারা বিকশিত এই মিসাইল জলের নীচের প্ল্যাটফর্ম থেকে শুক্রবার সকালে পরীক্ষণ করা হয়।

আপনাদের জানিয়ে রাখি, এর আগে রবিবার ৩ হাজার ৫০০ কিমি পর্যন্ত আঘাত হানতে পারা এই মিসাইলের সফল পরীক্ষণ করা হয়েছিল।। এই মিসাইল পরমাণু হাতিয়ার বহনে সক্ষম। এই পরিক্ষনের সফলতার পর ভারতীয় সেনার ডুবোজাহাজ থেজে শত্রু আস্তানায় ধ্বংসলীলা চালানোর ক্ষমতা আরও বেড়ে যায়।

এই মিসাইলকে প্রতিরক্ষা অনুসন্ধান এবং বিকাশ কেন্দ্র (ডিআরডিও) বিকশিত করেছে। এই মিসাইল ভারতেই তৈরি আরিহান্ট ক্লাসের পরমাণু ডুবোজাহাজে যুক্ত করা হবে। পরমাণু ডুবোজাহাজে যুক্ত করার আগে এই মিসাইলের এখনো আরও কয়েকটি পরীক্ষণ করা হবে। আপাতত ভারতের কাছে আইএনএস আরিহান্ট রুপে স্বদেশী ভাবে নির্মিত পরমাণু ডুবোজাহাজ আছে, আরেকটি পরমাণু ডুবোজাহাজ খুব শীঘ্রই যুক্ত হতে চলেছে।

ভারত মাটি, হাওয়া আর জলের ভিতর থেকে পরমাণু মিসাইল ফায়ার করার ক্ষমতা সম্পন্ন বিশ্বের ছয় নম্বর দেশ হয়ে গেলো। ভারত ছাড়া এই ক্ষমতা অ্যামেরিকা, রাশিয়া, ফ্রান্স, ব্রিটেন আর চীনের কাছে আছে।