বেরিয়ে এলো চাঞ্চল্যকর সিসিটিভি ফুটেজ!!আসিফা খুন-ধর্ষণ কান্ডে সবথেকে বড়ো পর্দাফাঁস করলো জী নিউজ।

জী নিউজ এর চেষ্টায় আরো একবার কাঠুয়া কাণ্ডের পর্দাফাঁস হলো দেশের সামনে।জম্মুর কাঠুয়া ঘটনাকে কেন্দ্র করে দিন কয়েক দেশজুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছিল। জম্মুর সাধারণ মানুষ এই বিষয়ে বার বার CBI তদন্তের দাবি করলেও মেহবুবা মুফতির সরকার এই ঘটনা ক্রাইম ব্রাঞ্চকে দিয়েই তদন্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু ক্রাইম ব্রাঞ্চ কাঠুয়া মামলায় যে চার্জসিট তৈরী করে তার উপর বার বার প্রশ্ন উঠতে শুরু করে। আসলে চার্জসিটে বলা হয়েছে আসিফকে মন্দিরে কয়েকদিন আটকে রেখে ধর্ষণ করা হয়েছে কিন্তু পরে দেখা গেছে ওই মন্দিরে ধর্ষণ তো দূর কাউকে একসপ্তাহ ধরে আটকে রাখা সম্ভব নয়।

তবে সম্প্রতি চার্জসিটের উপর আরো একটা বড়ো প্রশ্ন উঠেছে। আসলে কাঠুয়া মামলায় বিশাল জানগোত্রা নামে যে হিন্দু যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তার সম্পর্কিত একটা সিসিটিভি ফুটেজ এক এটিএম থেকে পাওয়া গেছে।

এই সিসিটিভি ফুটেজটি পাওয়া গেছে রসনা গ্রাম থেকে প্রায় ৫০০ কিমি দূরে মীরাপুর। এখন চার্জসিট এ লেখা হয়েছে বিশাল ১৩ তারিখে ধর্ষণ করার পর ১৫ তারিখ আসিফের দেহ জঙ্গলে ফেলে দেয়। কিন্তু সিসিটিভি ফুটেজ অনুযায়ী বিশাল ১৫ তারিক মীরাপুরে উপস্থিত ছিল। আপনাদের জানিয়ে রাখি এই সিসিটিভি ফুটেজ এবং পুরো তদন্ত চালিয়েছে দেশের সবচেয়ে বড়ো নিউস মিডিয়া জী নিউজ। দেখুন জী নিউজের DNA রিপোর্ট-

প্রশ্ন উঠছে তাহলে কি ক্রাইম ব্রাঞ্চ হিন্দুদের বদনাম করার জন্যই এইভাবে মিথ্যা চার্জসিট তৈরী করেছে। দেশের বিক্রিত মিডিয়া গুলো যেখানে আলদালতের রায় দেওয়ার আগেই বিশালকে ধর্ষণকারী আখ্যা দিয়েছিল সেখানে জী নিউজ বিষয়টি তদন্ত করে আসল সত্য একের পর এক মানুষের সামনে তুলে ধরেছে।

Leave a Reply

you're currently offline

Open

Close