Press "Enter" to skip to content

বেরিয়ে এলো ট্যাক্স সম্পর্কিত তথ্য!! হাতে নাতে মিললো নোটবন্দি ও GST এর সুফল।

সম্প্রতি ফাইন্যান্স মিনিস্টার এর তরফ থেকে ট্যাক্স সম্পর্কিত কিছু তথ্য প্রকাশিত হয়েছে । আপনাদের জানিয়ে রাখি এই রিপোর্টে এমন কিছু তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে যা বিরোধী দল ও মোদী বিরোধীদের চাপে ফেলছে। যদিও এব্যাপারে কোনো খবর দেশের বিক্রিত চ্যানেলগুলো দেখায়নি। আপনাদের জানিয়ে রাখি মোদী সরকার এমন সময় দেশে নোটবন্দি এবং GST লাগু করেছিল যখন দেশের আর্থিক অবস্থা খুবই ভালো ছিল। মোদী সরকার জানিয়েছিল এটাই উপযুক্ত সময় কারণ এখন নোটবন্দি ও GST এর ফলে যে সমস্যা সৃষ্টি হবে তা ভারতের অর্থনীতি সামলে নিতে পারবে। মোদী সরকার এটাও জানিয়েছিল এই পদক্ষেপের ফলে তাৎক্ষণিক কিছু সমস্যা অবশ্যই হবে কিন্তু এর ফল কিছু বছরের মধ্যেই দেশবাসী পাবেন।

জানলে খুশি হবেন সম্প্ৰতি ট্যাক্স সম্পর্কিত যে তথ্য বেরিয়ে এসেছে তাতে নোটবন্দি ও GST এর সুফল হাতে নাতে ধরা পড়েছে।

নোটবন্দি ও GST এর পর প্রায় ৩ লক্ষ কোম্পানিকে ডিরেজিস্টার করে দেওয়া হয়েছিল এবং কোম্পানির সম্পত্তি সরকার নিজের কাছে রেখে দিয়েছিল। কিন্তু কোম্পানিগুলো দুর্নীতিগ্রস্ত হওয়ায় কোনো কোম্পানি তাদের সম্পত্তি ফেরত নিতে আসেনি। যার ফলে পুরো সম্পত্তি সরকার দেশের কাজে নিয়োজিত করেছে। জানলে অবাক হবে ওই ৩ লক্ষ কোম্পানির মোট সম্পত্তির পরিমান দাঁড়িয়েছে ৩৭ হাজার কোটি টাকা যার পুরোটাই বর্তমানে সরকারের হাতে।

আগে ভারতে যেসব ১০০০ টাকার নোট তৈরী করা হতো তা তৈরী করতে খরচ পড়তো প্রায় সাড়ে ৪ টাকা অন্যদিকে ৫০০ টাকার এক একটি নোট তৈরী করতে খরচ হতো প্রায় ৩ টাকা ৭৫ পয়সা। অর্থাৎ ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট তৈরী করতে সরকারকে বেশ ভালো রকম খরচ করতে হতো কিছু কোম্পানির পেছনে। অবাক করার বিষয় এই জয়, ২০১৪ এর আগে পর্যন্ত ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বিদেশে(ইউরোপ) তৈরী করানো হতো এবং সেটাকে ভারতে আনা হতো। অর্থাৎ ভারত সরকার বিদেশকে লাভণিত করে নিজের ক্ষতি করতো কিন্তু মোদী সরকার আসার পর সেই সমস্থ পক্রিয়ায় ভারতে কম খরচে করার পরিকল্পনা করে যার জন্য ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বন্ধ করা অনিবার্য হয়ে উঠে। বর্তমানে ভারত সরকার নিজের বহুকোটি টাকা বিদেশে যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা করতে পেরেছে।

নোটবন্দি ও GST এর পর দেশে ডাইরেক্ট ট্যাক্সসেশন এর সংখ্যা বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে। দেশের যা কিছু উন্নতি হয় সমস্থ কিছু দেশের মানুষের ট্যাক্স এর উপর নির্ভর করেই তৈরী হয় কিন্তু আগে একটা বিশাল পরিমান জনসংখ্যা ভারত সরকারকে ট্যাক্স মেটাতোনা। কিন্তু মোদীসরকার তাদের ট্যাক্স প্রক্রিয়ার মাধমে আসতে বাধ্য করে।শুধু তাই নয় ইনডাইরেক্ট ট্যাক্সসেশন এর ক্ষেত্রেও সংখ্যা ১ কোটি ১০ লক্ষ ছুঁয়ে ফেলেছে যা আগে ছিল ৬০ লক্ষ।
দেশের নাগরিকদের জন্য সুখবর যে GST ও নোটবন্দির ফলাফল এবার হাতেনাতে পেতে শুরু করেছে ভারতবাসী কিন্তু দুঃখের বিষয় এই যে বিক্রিত মিডিয়া এই সব তথ্য কোনো প্রকারেই জনগণের সামনে তুলে ধরবে না।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.