Press "Enter" to skip to content

ব্যাঙ্কে ঢুকে দাদাগিরি তৃণমূল নেতার! ম্যানেজার এবং ব্যাঙ্ক কর্মীদের করলেন ব্যাপক হেনস্থা


রানাঘাটঃ এবার দলবল নিয়ে সরাসরি ব্যাঙ্কে ঢুকে গেলেন () পঞ্চায়েত সমিতির মেম্বার। দিলেন ম্যানেজারকে হুমকি। এই ঘটনা ঘটে গেলো নদীয়ার রানাঘাটে। সেখানকার পঞ্চায়েত সমিতির সদস্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে যে, তিনি দলবল বিয়ে ব্যাঙ্কে ঢুকে ম্যানেজারকে হুমকি দেন, হেনস্থাও করা হয় ম্যানেজারকে।

তৃণমূলের গুণধর নেতার এই ঘটনা ক্যামেরা বন্দি করতে গেলে ব্যাঙ্কের আর এক কর্মীও প্রহৃত হন। ওনাকে জামার কলার ধরে দেওয়া হয় চরম হুমকি। তৃণমূল নেতার এই কাণ্ডতে আতঙ্কিত ব্যাঙ্কের কর্মীরা। সুরক্ষার জন্য অনির্দিষ্ট কালের জন্য ব্যাঙ্ক বন্ধের ডাক দিয়েছেন। ব্যাঙ্ক কর্মীদের অনির্দিষ্ট কালের ব্যাঙ্ক বন্ধের দাবিতে সমস্যায় পড়েছেন ব্যাংকের গ্রাহকেরা।

নদীয়া জেলার ধানতলা এলাকার সমবায় কৃষি উন্নয়ন সমিতির ব্যাঙ্কে গত ২২ জুলাই রানাঘাটের ২ নম্বর ব্লকের তৃণমূল পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য জগদীশ মণ্ডল আর জগন্নাথ রায় ব্যাঙ্ক ম্যানেজারের সাথে কথা বলতে যান। ছিলেন ওনাদের বেশ কিছু অনুগামীও। ব্যাঙ্কে গিয়ে নতুন করে সদস্যপদ দেওয়ার দাবি জানান ওনারা। কিন্তু ব্যাঙ্ক ম্যানেজার স্পষ্ট জানিয়ে দেন, সামনেই বার্ষিক সভা আছে আর তাঁর আগে কোন নতুন সদস্য নেওয়া হবেনা। ব্যাস, এরপরেই শুরু হয় বচসা।

তৃণমূলের নেতারা ব্যাঙ্কের ম্যানেজারকে হুমকি দেন, এবং অন্যান্য কর্মীদের মারধর করেন বলেও অভিযোগ। গোটা ঘটনা ধরা পড়েছে ব্যাঙ্কের সিসিটিভি ক্যামেরায়। ঘটনার প্রতিবাদে ব্যাঙ্কের তরফ থেকে ধানতলা থানায় অভিযোগও দায়ের করা হয়েছে। ব্যাঙ্কের কর্তৃপক্ষ সোজা জানিয়ে দেন যে, যতদিন না অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ, ততদিন তাঁরা নিরাপত্তার খাতিরে বন্ধ রাখবে ব্যাঙ্ক। জুলাইয়ের ২৩ তারিখ থেকে বন্ধ রয়েছে এই সমবায় ব্যাঙ্ক। আর এরফলে চরম সমস্যার সন্মুখিন গ্রাহকেরা।