Press "Enter" to skip to content

বড়ো সাফল্য ভারতীয় রেলের! বাতাস থেকে তৈরি হবে পানীয় জল, স্টেশন বসছে মেশিন

ীয় রেলওয়ে (Indian Railways) অসম্ভবকে সম্ভব করে দেখিয়েছে। রেলওয়ে সূত্রে খবর, খুব তাড়াতাড়ি একদম পরিশুদ্ধ পানীয় জল মিলবে চণ্ডীগড় স্টেশনে। ইন্ডিয়ান রেলওয়ে স্টেশন ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন ইতিমধ্যে তোড়জোড় শুরু করেছে। বাতাস থেকে জল তৈরির মেশিন বসানোর কাজের জন্য খুব শিগগিরই টেন্ডার ডাকা হবে।

তেলেঙ্গানার সেকেন্দ্রাবাদ রেল স্টেশনের মতোই, চণ্ডীগড় রেলওয়ে স্টেশনেও এই ‘মেঘদূত টেকনিক’ দিয়ে জল তৈরির কাজ করা হবে। WHO এবং জলশক্তি মন্ত্রকে পরীক্ষা নিরীক্ষা করে সবুজ সংকেত দিলে মেক ইন ইন্ডিয়ার আওতায় এই পানীয় জল তৈরি করা হবে। পরিবেশের সঙ্গে মানানসই এই মেশিন সবসময় এক‌ইভাবে কাজ করবে। ডিসপ্লেতে তাপমাত্রা এবং আর্দ্রতার মাত্রা যেকোনো সময়‌ই দেখা যাবে। এই মেশিন বাতাস থেকে জল সংগ্রহ করে সরাসরি জল তৈরি করবে।

জল তৈরির প্রক্রিয়ায় প্রথমে বাতাসকে শুদ্ধ করবে এই মেশিন এবং নিশ্চিত করবে দূষিত পদার্থ জলে মিশে নেই। এই মেশিনের সাহায্যে বাতাসের আর্দ্রতা জলে রূপান্তরিত হবে। তারপর পরিশুদ্ধ বাতাস সরাসরি কুলিং চেম্বারে স্থানান্তরিত হবে। সেখানেই ঠান্ডা হয়ে জলবিন্দুতে পরিণত হবে এবং স্টিলের ট্যাঙ্কে জমা হবে।

এরপর জমা জল কার্বন এবং ওজোন পরিস্ের মাধ্যমে শুদ্ধ করে নিয়ে পানযোগ্য করা হবে। শেষে খনিজ দ্রব্য মিশিয়ে জলের স্বাদ বদল করা হবে। বহুবছর ওয়াটার ভেন্ডিং মেশিনগুলি বন্ধ ছিল। কিন্তু বর্তমানে এই মেঘদূত প্রকল্পের জন্য চণ্ডীগড় রেলওয়ে স্টেশনে যাত্রীরা অনেক উপকার পাবে। সেইসঙ্গে ভারতীয় রেল‌ও প্রশংসিত হবে।