Press "Enter" to skip to content

ভারতকে কেনিয়ার ১২ টন খাদ্য সামগ্রী সাহায্য শুধুমাত্র বন্ধুত্বের প্রতীক! আমেরিকাকে দান করেছিল ১৪ টি গাই

একবার ভগবান শ্রী কৃষ্ণের বাল্যকালের বন্ধু সুদামা ভগবানের সাথে দেখা করতে এসেছিল। যেহেতু সুদামার আর্থিক অবস্থা খুব দুর্বল ছিল তা ভগবান কৃষ্ণের জন্য উনি বিশেষ কিছু নিয়ে আসতে পারেননি। বাড়িতে যা চাল ছিল তার অর্ধেক এক কাপড়ে বেঁধে এনেছিলেন। যার পরিমান ছিল, ৩ মুঠো। ভগবান কৃষ্ণের সাথে দেখা হওয়ার পর সুদামা ওই চাল দিতে লজ্জা পায়। তবে ভগবান কৃষ্ণ চাল দেখতে পেয়ে তা সানন্দে খেতে শুরু করে দেন। ৩ মুঠো চাল খেয়ে ভগবান কৃষ্ণ ত্রিভুবন সুদামার নামে করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন, যদিও ২ মুঠো চাল খাওয়া হলে বাকি এক মুঠো রুকমনি খেয়ে নেন। মাত্র ৩ মুঠো চালের জন্য কেন ত্রিভুবন সুদামার নামে করে দিতে চেয়েছিলেন এই প্রশ্নে ভগবান বলেছিলেন, পরিমান বা বস্তু গুরুত্বপূর্ণ নয় বরং কোন ‘ভাব’ এ আনা হয়েছে , কোন স্নেহে সুদামা এটা তার জন্য এনেছে এটাই গুরুত্বপূর্ণ।

উপরোক্ত ঘটনা থেকে একটা বিষয় পরিষ্কার যে ীয় মন অত্যন্ত উদার এবং সংবেদনশীল। আরো একটা বিষয় এই যে, বন্ধুত্ব বিষয় বস্তুর উপর নির্ভরশীল নয় বরং আন্তরিক স্নেহের উপর নির্ভরশীল। সম্প্রতি ভারতের বন্ধু দেশ কেনিয়া ভারতে ১২ টন খাদ্য সামগ্রী পাঠিয়েছে। আর এতে রীতিমতো হাসি ঠাট্টা শুরু করেছে একাংশ। তাদের বক্তব্য, কেনিয়া একটা গরীব দেশ তারাও ভারতকে সাহায্য পাঠাচ্ছে। এর থেকে বোঝা যায় ভারতের অবস্থান কোন জায়গায়। একদল সংবাদ মাধ্যমও কেনিয়ার সাহায্য পাঠানো নিয়ে রসিকতা করেছে একই সাথে ভারতের নিয়ে প্ৰশ্ন তুলেছে।

জানিয়ে দি, করোনা পরিস্থিতিতে কেনিয়া ভারতের বন্ধু হিসেবে সর্বদা পাশে রয়েছে মূলত এটা প্রকাশ করার উদ্যেশ্যে কেনিয়া ভারতে ১২ টন খাদ্যসামগ্রী পাঠিয়েছে। কেনিয়া GDP এর দিক থেকে ভারতের থেকে ৩০ গুন ছোটো। কেনিয়া ভারতকে যা পাঠিয়েছে তা বন্ধুত্বের প্রতীক হিসেবে না দেখে অনেকেই এই ঘটনায় ভারতের বৈদেশিক নীতির দোষ খুঁজতে ব্যাস্ত।

বাংলার বেশকিছু সংবাদ মাধ্যম ভারতের দোষ খোঁজার বিষয়ে উস্কানি দিয়েছে। এক সংবাদ মাধ্যম এও লিখেছে যে এমন অবস্থা এল যে কেনিয়ার থেকে সাহায্য নিতে হচ্ছে। অনেক আবার বলেছে, এটাই কি আচ্ছে দিনের নমুনা। তবে শুধুমাত্র বন্ধুত্বের প্রতীক হিসেবে কেনিয়া ভারতকে এই খাদ্যসামগ্রী পাঠিয়েছে তা বুঝে উঠতে অক্ষম এই সংবাদ মাধ্যমগুলি। আমেরিকায় ৯/১১ হামলা হওয়ার পর কেনিয়া সরকার তাদের ১৪ টি গাই দান করেছিল। তাহলে কি ৯/১১ হামলার পর দেশে অভাব এসেছিল? উত্তর, মোটেও না। শুধুমাত্র বন্ধুত্ব প্রকাশ করতে এই দান করেছিল কেনিয়া।