Press "Enter" to skip to content

ভারতকে নিয়ে মন ছুঁয়ে যাওয়া কথা বলল রাশিয়া, বিশ্ব মঞ্চে বাড়ল শক্তি ও মান

নয়া দিল্লিঃ ভারতে (India) রাশিয়ার () ডেপুটি অ্যাম্বাসেডর রোমান বাবুশকিন বলেছেন যে, S-400 মিসাইল সিস্টেম (S-400 missile system) চুক্তি ভারতের “সার্বভৌমত্বের” শক্তির প্রতীক। রাশিয়ান কর্মকর্তা এটা অস্বীকার করেছেন যে রাশিয়ার ের গত সোমবারের সফরের সময় স্বাক্ষরিত চুক্তি বা অন্যান্য বড় চুক্তিগুলি মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে উদ্বেগের কারণে বাদ পড়েছিল।

প্রতিরক্ষা চুক্তিতে ভারতের করার সময় বাবুশকিন বলেন, “এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা কেনার সিদ্ধান্ত আমাদের প্রতিরক্ষা এবং কৌশলগত অংশীদারিত্ব কতটা উন্নত তার একটি খুব শক্তিশালী উদাহরণ এবং জাতীয় নিরাপত্তার জন্য তার অংশীদারদের বেছে নেওয়ার ভারতের সিদ্ধান্তটি সার্বভৌমত্ব কতটা শক্তিশালী সেটাই বুঝিয়েছে।’ তিনি নিশ্চিত করেছেন যে রাশিয়া থেকে পাঁচটি S-400 মিসাইল সিস্টেমের মধ্যে প্রথম ডেলিভারি এই মাসেই শেষ হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

একদিনের শীর্ষ সম্মেলনে, পুতিন এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মধ্যে বেশ কয়েকটি বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে এবং উভয় পক্ষই ২৮টি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। উভয় পক্ষের তরফ থেকে ৯৯ দফা যৌথ বিবৃতি জারি করা হয়। কিন্তু এই বৈঠকে লজিস্টিক চুক্তির পারস্পরিক বিনিময় (RELOS) এবং নৌবাহিনীর মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতার একটি স্মারক স্বাক্ষরের সম্ভাবনা ছিল, কিন্তু এটি অস্পৃশ্য রয়ে গেছে।

জল্পনা উঠেছে যে, ভারত সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, যুদ্ধ বিমান আর কম দূরত্বের মিসাইলের চুক্তি ততদিন স্থগিত করা হবে যতদিন না এটা স্পষ্ট হচ্ছে যে আমেরিকা S-400 মিসাইল সিস্টেম ডেলিভারিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করবে, কী করবে না।

এসব জল্পনা প্রত্যাখ্যান করে রোমান বাবুশকিন ইংরেজি দৈনিক ‘দ্য হিন্দু’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘এই সম্মেলন খুব অল্প সময়ের মধ্যে ডাকা হয়েছিল এবং সে কারণেই কিছু বিশেষ চুক্তি সম্পন্ন করা যায়নি। বাবুশকিন আরও বলেন, আগামী বছরের মধ্যে নৌ চুক্তি, RELOS এবং অন্যান্য সকল চুক্তি সম্পন্ন হবে।”