Press "Enter" to skip to content

ভারতীয়দের অপমান করেছিল ব্রিটেন! এক ঝটকায় বদলা নিল মোদী সরকার

ইংরেজরা 1947 সালে ভারত ছেড়ে চলে যেতে বাধ্য হয়েছে। তবে ভারতকে পরাধীন মনে করার চিন্তা তাদের 2021 সালেও প্রতিফলিত হচ্ছে। বর্তমান ভারত এমন একটা দেশ যা বিশ্বে সর্বাধিক ও মেডিকেল উপকরণ উৎপাদন করে। ভারত ভ্যাকসিন দেওয়ার মামলায় বিশ্ব রেকর্ড বানিয়ে ফেলেছে। এদিকে ব্রিটেন যে ভিসা নিয়ম (Visa Rule) লাগু করেছে তা স্পষ্ট করে দেয় যে তারা এখনও ভারতকে পরাধীন মনে করে।

ব্রিটেনের দ্বারা লাগু করা নিয়ম

ব্রিটেনের পর্যটকদের জন্য বৈষম্যমূলক নিয়ম লাগু করেছে। সেই অনুযায়ী ইউরোপ ও আমেরিকার পর্যটকরা ব্রিটেনে যে সুযোগ সুবিধাগুলি পাবে সেগুলি ভারতীয়রা পাবেন না। ব্রিটেনে লাগু করা নিয়ম অনুযায়ী ইউরোপ-আমেরিকায় যারা ভ্যাক্সিনেটেড পর্যটক তাদেরকে ব্রিটেনে কোনরকম কোয়ারেন্টাইন এ থাকতে হবে না। অন্যদিকে ভারতীয় পর্যটকদের ক্ষেত্রে লাগু করা হয়েছে অন্য নিয়ম। ভারতে যারা ভ্যাকসিন নিয়েছেন তাঁদেরকে ব্রিটেনে গেলে কোয়ারেন্টাইন এ থাকতে হবে।

একই কোম্পানির ভ্যাকসিন আপনি যদি আমেরিকা ইউরোপ থেকে নেন তাহলে আপনার জন্য ব্রিটেনে সুযোগ-সুবিধা থাকবে। অন্য দিকে ওই একই কোম্পানির ভ্যাকসিন ভারতে নিলে তার জন্য আপনি কোন সুযোগ-সুবিধা পাবেন না, উল্টে আপনাকে নতুন কিছু টেস্ট এর মধ্য দিয়ে যেতে হবে এবং কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

পাল্টা ব্রিটেনকে ঝটকা ভারতের

ভারতীয়দের সাথে এমন বৈষম্যমূলক আচরণ করায় ভারত সরকার বৃটেনের প্রতীক আক্রোশ প্রকাশ করেছে একই সাথে ভারত সরকারও বৃটেনের নাগরিকদের জন্য নতুন নিয়ম করেছে। ভারত সরকার দ্বারা স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে ব্রিটেন থেকে কোনো নাগরিক ভ্যাকসিন নিয়ে এলেন তার ভ্যাকসিন কে কোন মান্যতা দেওয়া হবে না এক্ষেত্রে বৃটেনের কোন নাগরিক ভারতের তাকে বহু টেস্ট এর মধ্য দিয়েই যেতে হবে। শুধু এই নয় বৃটেন থেকে কোনো নাগরিক যে কোম্পানির ভ্যাকসিন নিয়ে আসুক না কেন তাকে অবশ্যই ভারতে এসে 10 থেকে 15 দিন কোয়ারেন্টাইন এ থাকতে হবে।