Press "Enter" to skip to content

ভারতের আপত্তিতে টনক নড়ল পাকিস্তানের, মন্দিরে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপের আশ্বাস


নয়া দিল্লীঃ পাকিস্তানের (Pakistan) পাঞ্জাব প্রান্তে সাদিকাবাদ জেলায় মন্দিরে হওয়ার ভাঙচুরের ঘটনায় ইমরান খানের (Imran Khan) বয়ান সামন এসেছে। উনি এই ঘটনার নিন্দা করে জানিয়েছেন যে, সরকার মন্দিরের মেরামত করবে। প্রসঙ্গত, ভং শরীফ গ্রামে সিদ্ধিবিনায়ক মন্দিরে বুধবার উপদ্রবিরা হানা দেয়। মন্দিরে ঢুকে তাঁরা দেব-দেবীর মূর্তি সহ ভেতরের আসবাবপত্র ভাঙচুর করে। এই ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় হয়ে যায়।

এই বিষয়ে ইমরান খান টুইট করে লেখেন, গণেশ মন্দিরে হওয়া হামলার তীব্র নিন্দা করছি। আমি আইজি পাঞ্জাবকে নির্দেশ দিয়েছি যে, তিনি যেন সমস্ত দোষীদের করে তাঁদের কড়া শাস্তি দেয়। এই মামলা অবহেলা করলে তাঁদের বিরুদ্ধেও পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

মন্দিরে ভাঙচুর চালানোর ঘটনায় বৃহস্পতিবার পাকিস্তানি হিন্দুরা ক্ষোভ প্রকাশ করে আর দোষীদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি করে। ভারত সরকার মন্দিরে হওয়া হামলার নিন্দা করেছে। ভারতের বিদেশ মন্ত্রালয় পাকিস্তানের দূতাবাসের এক আধিকারিকে তলব করেও কড়া নিন্দা করেছে।

পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট এই মামলায় পাঞ্জাব প্রান্তের মুখ্য সচিব আর ইনস্পেকটর জেনারেল অফ পুলিশকে শুক্রবার আদালতে পেশ হওয়ার নির্দেশ জারি করেছে। পাকিস্তানের প্রধান বিচারক গুলজার আহমেদ বৃহস্পতিবার এই আদেশ জারি করেছেন। প্রধান বিচারপতিকে এই ঘটনার বিষয়ে পাকিস্তানি সাংসদ তথা পাকিস্তানি হিন্দু পরিষদের সংরক্ষক ডঃ রমেশ কুমার অবগত করিয়েছিলেন।

অন্যদিকে, সিদ্ধিবিনায়ক মন্দির কর্তৃপক্ষ এবং স্থানীয় হিন্দুরা সরকারের অপেক্ষায় না থেকে নিজেরাই মন্দির সারানোর কাজ শুরু করেছে। মন্দিরের ভেঙে ফেলা আসবাব, ফ্যান, লাইট এবং বাকি জিনিশগুলি তাঁরাই সারাই করার কাজ করছে।

https://platform.twitter.com/widgets.js