Press "Enter" to skip to content

ভারতের ঝোড়ো ইনিংস দেখে উন্মাদ হল পাকিস্তান, দেওয়া শুরু করল নতুন অজুহাত

[ad_1]

কলকাতাঃ টি-২০ (Twenty20) বিশ্বকাপে লাগাতার দুটি ম্যাচ হারের পর ভারতীয় দল (Indian National Cricket Team) বুধবার আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে বড় জয় হাসিল করে। বুধবারের ম্যাচ ভারতের কাছে অনেকটাই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। একদিকে ছিল সম্মান বাঁচানোর লড়াই, অন্যদিকে সেমি ফাইনালে যাওয়ার ক্ষীণ আশা টিকিয়ে রাখার লড়াই। আর সেই লড়াইয়ে ভারতীয় দল নিজেদের প্রমাণ করেছে। কাবুলিওয়ালাদের হারিয়ে ভারতীয় দল রানরেটও কিছুটা শুধরে নিয়েছে।

নিউজিল্যান্ড (New Zealand) আর পাকিস্তানের (Pakistan) ম্যাচে ভারতীয় দল যেখানে চুপসে ছিল, সেখানে আফগানদের বিরুদ্ধে জ্বলে ওঠে তাঁরা। প্রথম থেকে রনং দেহি মেজাজে ছিলেন ভারতের দুই ওপেনার রোহিত শর্মা ও কেএল রাহুল। তাঁদের দুজনের ব্যাটে ভর করেই ভারত এবারের টি-২০ বিশ্বকাপে সর্বাধিক রান করার কৃতিত্ব অর্জন করেছে।

দুজনে আউট হওয়ার পর হার্দিক পান্ডিয়া ও ঋষভ পন্থের মারকুটে ব্যাটিংও সবার নজর কেড়েছে। ভারতীয় দল ২০ ওভারে মাত্র ২ উইকেট খুইয়ে ২১০ রান করে। টিম ইন্ডিয়ার ক্যাপ্টেন বিরাট কোহলি প্রথম থেকেই সেজেগুজে বসে থাকলেও মাঠে নামার সুযোগ পান নি। অন্যদিকে আফগানিস্তান ব্যাট করতে নেমে কিছুটা লড়াই করলেও জয় বের করে নিতে পারেনি ভারতের বিরুদ্ধে। তাঁরা ২০ ওভারে ৭ উইকেট খুইয়ে ১৪৪ রান করে। যার জেরে ভারত ৬৬ রানে জয়ী হয়।

দুই ম্যাচে হারের পর ভারতীয় সমর্থকরা যখন এবারের বিশ্বকাপে নিজেদের প্রিয় দলের জয় নিয়ে মেতেছিল। তখন, পাকিস্তানি সমর্থকরা আবার ভারতের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ করতে ব্যস্ত হয়ে উঠেছিল। ট্যুইটার সহ বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় পাকিস্তানিরা ভারত আর আফগানিস্তানের মধ্যে এই ম্যাচে গড়াপেটার অভিযোগও তোলে।

পাকিস্তানের সংবাদ মাধ্যমের এক সাংবাদিক আরফা ফিরোজ জেক একটি ট্যুইট করে ভারত-আফগানিস্তানের ম্যাচে গড়াপেটার অভিযোগ করেছেন। তিনি লিখেছেন, ‘ভারতের সুনাম এতটাই নিচে নেমে গেছে যে, তাঁরা প্রত্যাশার চেয়ে বেশি পারফরম্যান্স করে সারা বিশ্বের ক্রিকেট ভক্তদের ম্যাচ ফিক্সিং নিয়ে মতামত তৈরি করতে বাধ্য করেছে! আইসিসিকে অবশ্যই আফগানিস্তানের শারীরিক ভাষা ও প্রচেষ্টার তদন্ত করা উচিৎ, কারণ সেগুলো স্বাভাবিক ছিল না!”

https://platform.twitter.com/widgets.js

[ad_2]