Press "Enter" to skip to content

‘ভারতের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক আরও মজবুত হবে” বাইডেন রাষ্ট্রপতি হওয়ার পর প্রথম বয়ান White House-এর


নয়া দিল্লীঃ আমেরিকার জো বাইডেন নতুন রাষ্ট্রপতি আর কমলা হ্যারিস নতুন উপরাষ্ট্রপতি হিসেবে কার্যভার নিলেন। এরপরেই হোয়াইট হাউস জানালো যে, ভারতের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক আরও মজবুত হবে। হোয়াইট হাউসের প্রেস সচিব যেন সাকি বলেন, রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন দুই দেশের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে সন্মান করেন। জানিয়ে রাখি, বুধবার বাইডেন আমেরিকার ৪৬ তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন।

বাইডেন প্রশাসনে ভারত-আমেরিকার সম্পর্ক নিয়ে একটি প্রশ্নের জবাবে সাকি বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি বাইডেন এর আগে অনেকবার ভারতের সফর করেছেন। তিনি ভারত আর আমেরিকার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা সফল দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের সন্মান করেন, উনি এর গুরুত্ব বোঝেন। বাইডেন প্রশাসন এই সম্পর্ককে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য আশাবাদী।”

উনি বলেন কমলা হ্যারিস দেশের উপরাষ্ট্রপতি হওয়ার পর দুদেশের সম্পর্ক আরও মজবুত হবে। সাকি বলেন, ‘বাইডেন নিজেই কমলা হ্যারিসকে বেছে নিয়েছেন আর তিনি প্রথম ভারতীয় বংশোদ্ভূত যিনি আমেরিকার উপ রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হয়েছেন। এটা গোটা দেশের কাছে শুধু একটি ঐতিহাসিক মুহূর্তই নয়, দুই দেশের সম্পর্ক আরও মজবুত হওয়ার লক্ষ্মণ।”

এর আগে আমেরিকার রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন দায়িত্ব সামলানোর পর প্রথম দিন এক নতুন চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করেন বাইডেন। যেখানে বলা হয়, ১.১ কোটি প্রবাসী আমেরিকানদের নাগরিকত্ব দেবে মার্কিন সরকার। যে তালিকায় প্রায় ৫ লক্ষ ভারতীয়েরও নাম রয়েছে। পাশাপাশি ট্রাম্প সরকারের বেশ কিছু সিদ্ধান্তের বদল ঘটান জো বাইডেন।

ট্রাম্পের জামানায় যেসকল মুসলিম দেশের উপর মার্কিন সরকারের নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল, তা খারিজ করে দ্রুত ভিসা প্রক্রিয়া চালু করার আদেশ দেন বাইডেন। পাশাপাশি WHO-র উপর জারি করা ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞাও তুলে নেন তিনি। সেইসঙ্গে সকলের জন্যই মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করলেন।

বিডেন জানিয়েছেন, বর্তমান সময়ে করোনা মহামারি, জলবায়ু, অর্থনৈতিক সংকট হল সবথেকে বড় সমস্যা। তাই বর্তমানে এগুলো নিয়ে আলোচনা করা জরুরী।