Press "Enter" to skip to content

ভারতের সমর্থনে আরও একটি পদক্ষেপ আমেরিকার, দক্ষিণ চীন সাগরে চালাল ডুয়েল ক্যারিয়ার অপারেশন


নয়া দিল্লীঃ আমেরিকার নৌসেনা () ে () স্বাধীন আর উন্মুক্ত ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলকে সমর্থন করে ‘ডুয়েল ক্যারিয়ার অপারেশন” আর যুদ্ধ অভ্যাস করছে। ভারত আর চীনের মধ্যে লাদাখে মে মাস থেকে চলা সীমান্ত বিবাদের মধ্যে আমেরিকার নৌসেনার অভ্যাস বুঝিয়ে দেয় যে, তাঁরা ভারতের পক্ষেই আছে।

রোনাল্ড রিগন ক্যারিয়ার স্ট্রাইক গ্রুপের জন্য ‘ অ্যাক্রিডেশন ইন পব্লিক রিলেশন অ্যান্ড মিলিটিরি পব্লিক অ্যাফায়ার্স” আধিকারিক লেফটেনেন্ট কম্যান্ডার শন ব্রোফী বলেন, ইউএসএস নিমিৎজ আর ইউএসএস রোনাল্ড রিগন দক্ষিণ চীন সাগরে স্বাধীন আর উন্মুক্ত ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলকে সমর্থন করে ‘ডুয়েল ক্যারিয়ার অপারেশন” আর যুদ্ধ অভ্যাস করছে।

সম্প্রতি চীন সেনার আক্রমণাত্বক মনোভাবের মোক্ষম জবাব দেওয়ার জন্য আর ভারত সমেত এশিয়ার অন্যান্য দেশ গুলোকে সমর্থন দেওয়ার জন্য আমেরিকা নিজেদের সেনাকে ইউরোপ থেকে সরিয়ে এশিয়ায় মোতায়েন করেছে। আমেরিকার বিদেশ মন্ত্রী মাইক পম্পিও বলেন, ভারত আর দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার দেশ গুলোর উপর প্রভাব বিস্তার করতে চাইছে চীন, আর সেই কারণে আমেরিকা ইউরোপ থেকে নিজেদের সেনা কমিয়ে এশিয়ার আলাদা আলাদা জায়গায় মোতায়েন করছে।

পম্পিওকে যখন জিজ্ঞাসা করা হয় যে, আমেরিকা জার্মানি থেকে কেন সেনার সংখ্যা কমাল, তখন উনি বলেন, এশিয়ার বিভিন্ন অঞ্চলে সেনার সংখ্যা বাড়ানোর জন্যই জার্মানি থেকে সেনার সংখ্যা কমানো হয়েছে।

আমেরিকার বিদেশ মন্ত্রী বলেছিলেন যে, চীনের ক্ষমতায় থাকা কমিউনিস্ট পার্টির কারণে ভারত, ভিয়েতনাম, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া আর দক্ষিণ চীন সাগরে বিপদ বাড়তে পারে। উনি বলেন, আমরা এই বিষয় সুনিশ্চিত করব যে, আমেরিকার সেনা যেকোন দুঃসাহসকে প্রতিহত করার জন্য প্রস্তুত।