Press "Enter" to skip to content

“ভারত ৭ টি মেডেল জিতল, আমরা কেন পারলাম না”- ক্রীড়ামন্ত্রীকে ধমক দিলেন ইমরান খান

[ad_1]

টোকিও অলিম্পিকে একটি সোনা সহ ৭ টি পদক জিতেছে ভারত। কিন্তু ভারতের এই সাফল্য দেখে রাগে ফুঁসছে পাকিস্তান। ভারতের সাফল্য দেখে পৃথিবীর সবাই খুশি হলেও পাকিস্তানের গা জ্বলতে শুরু করেছে। প্রতিবেশী দেশের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সকে ভালো চোখে দেখছে না পাকরা। বাধ্য হয়ে দেশের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তলব করেছেন ক্রীড়ামন্ত্রী ফেহমিদা মির্জাকে। দশজন অ্যাথলিটের একজন‌ও পদক না জিতে ফিরে এসেছে দেশে। ফলে ভারতের সাফল্যের পাশে পাকিস্তানের চূড়ান্ত ব্যর্থতা মুখ পুড়িয়েছে দেশের। কেন পাকিস্তান একটাও মেডেল জিততে পারেনি তাই নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়েছে পাকিস্তানের ক্রীড়ামন্ত্রীকে।

পাকিস্তানের ফেডারেল মন্ত্রী আসাদ উমর‌ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী দেশের ক্রীড়া পরিকাঠামোর দিকে বিশেষ নজর দিতে চাইছেন। তাই প্রধানমন্ত্রী চাইছেন তার মেয়াদ শেষের আগেই যুব সমাজকে খেলাধূলোর প্রতি আগ্রহী করে তুলতে। ক্রিকেটের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে অন্যান্য খেলাতেও যাতে দেশের সম্মান সকলের সামনে তুলে ধরা যায়‌ সেদিকে তিনি নজর দিতে বলেছেন।

আসলে নীরজ চোপড়ার সোনা-সহ ভারতের এতগুলো পদক জয় ইমরান খানের মন্ত্রীত্বের উপর চাপ বাড়াতে শুরু করেছে। আসাদ স্বীকার করে নিয়েছেন, গত তিন বছর খেলাধূলোর উপর নজর দেয়নি পাক সরকার। নিজেদের অভ্যন্তরীণ সমস্যা মেটাতেই সময় চলে গিয়েছে তাও মেনেছেন তিনি।

অন্যদিকে, টোকিওতে মুখ থুবড়ে পড়ার জন্য জাতীয় স্তরের অলিম্পিক কমিটিগুলোকে দায়ী করেছেন ক্রীড়ামন্ত্রী ফেমিদা মির্জা। প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, সব রাজ্যের ক্রীড়া প্রতিষ্ঠানগুলো ৪৪০ মিলিয়ন কেন সরকারকে ফেরত দিয়েছিল? অবশ্য এই প্রশ্নের উত্তর দিতে পারেননি তিনি। তবে মির্জা জানিয়ে দিয়েছেন, জাতীয় ফেডারেশনগুলোকে পরিকল্পনা জমা দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে এবং খেলাধুলার পরিকাঠামোগত উন্নয়নের জন্য পাকিস্তান সরকারের তরফ থেকে সমস্ত রকম সাহায্য করা হবে।

[ad_2]